বাউফলে আ'লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে যুবলীগ কর্মী নিহত

অতুল পাল: বাউফলে ঈদুল ফিতরের তোরণ নির্মাণ করাকে কেন্দ্র করে সংঘটিত সংঘর্ষে বাউফলের মেয়র সমর্থকদের অস্ত্রের আঘাতে আ. স.ম. ফিরোজ এমপির সমর্থক এক যুবলীগ কর্মী সন্ধায় বরিশাল শের ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধিন অবস্থায় মারা গেছে। আজ রোববার দুপুরে বাউফল থানার সামনে মেয়র সমর্থক ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আ.স.ম. ফিরোজ এমপির সমর্থকদের মধ্য সংঘর্ষ হয়। রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে তাপস দাস(৩২) মেয়র সমর্থকদের রামদায়ের কোপে গুরুতর আহত হয়। তাৎক্ষণিক তাকে বরিশাল শের ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসাধিন অবস্থায় সন্ধা সারে সাতটায় সে মারা যায়। তাপসের বাড়ি উপজেলার কালাইয়া ইউনিয়নের কালাইয়া গ্রামে। তার বাবার নাম সুচিত্র দাস( বদু দাস)। তাপস কালাইয়া ইউনিয়ন যুবলীগের সক্রিয় কর্মী ছিল। কালাইয়া ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক এসএম ফয়সাল আহমেদ মনির হোসেন মোল্লা জানান, মেয়র জিয়াউল হক জুয়েলের সরাসরি নির্দেশে তাপসকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে।
বাউফল পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি নাজিরপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. ইব্রাহিম ফারুক বলেন, মেয়র জুয়েলের নির্দেশে তার সমর্বাথকরা পরিকল্পিতভাবে এই হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে।

Previous articleকলাপাড়ায় ঘূর্ণিঝড় আস্ফানে নিহত শাহ আলমের পরিবারকে আর্থিক সহয়তা প্রদান
Next articleরংপুরে ১শ’ প্রতিবন্ধি শিশুর মাঝে ঈদের পোশাক বিতরণ করলো জেলা ছাত্রলীগ
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।