পাবনায় করোনায় প্রথম প্রাণ গেলো এলজিইডি’র হিসাব রক্ষন কর্মকর্তা কাজী ফিরোজের

কামাল সিদ্দিকী: মরণঘাতি করোনা ভাইরাসে প্রাণ গেল এলজিইডি’র প্রধান কার্যালয়ের হিসাব রক্ষন কর্মকর্তা কাজী আলতাফ হোসেন ফিরোজের। তাঁর বয়স হয়েছিল ৫৬ বছর। তিনি স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়েসহ বহু আত্মীয়-স্বজন রেখে গেছেন। তার বাড়ী পাবনা সদও উপজেলার মালিগাছা গ্রামে। রোববার সন্ধ্যা ৬ টা ৩৫ মিনিটে ঢাকার মিরপুর ১২ নম্বরে বেসরকারি রিজেন্ট হাসপাতালে মারা যান তিনি। মরহুমের ভাস্তে কাজী এখলাস উদ্দিন আকিব জানান, গত ৫ দিন আগে তিনি করোনায় আক্রান্ত হন। তাকে ঢাকার কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখান থেকে আইসিইউতে নেয়ার জন্য কর্তব্যরত চিকিৎসক মিরপুর ১২ নম্বরে রিজেন্ট হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ রোববার তিনি মারা যান। আকিব আরও জানান, সরকারি অনুমতি সাপেক্ষে আঞ্জুমান মুফিদুল ইসলাম লাশের দাফন কাফনের দায়িত্ব নিয়েছে। নিয়ম মেনে তাকে পাবনা সদর উপজেলার মালিগাছা-মজিদপুর গোরস্থানে দাফন করা হবে। তিনি বলেন, হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র নেয়া হয়েছে। লাশ রওনা দেবে এবং পাবনায় পৌছানোর পরই আঞ্জুমান মুফিদুল ইসলাম তাদের নিজ দায়িত্বে দাফন সম্পন্ন করবে। এদিকে কাজী আলতাফ হোসেন ফিরোজের মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায় নেবে এসেছে।