নির্বাচন কমিশনের পদত্যাগ দাবি সিপিবির

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: ডিজিটাল ভোট কারচুপির অপরাধে নির্বাচন কমিশনের পদত্যাগ ও ঢাকা সিটি করপোরেশনের পুনরায় নির্বাচন দাবিতে মানববন্ধন করেছে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্কসবাদী)- সিপিবি (এম)।
আজ মঙ্গলবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন থেকে এ দাবি করা হয়।
মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, বর্তমান সরকার গণতন্ত্রকে হত্যা করেছে। মানুষের ভোট ও ভাতের অধিকার হরণ করেছে। বাক-স্বাধীনতা হরণ করেছে। লুটপাট গুম-খুন সন্ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছে। প্রশাসনে দলীয় সন্ত্রাসীদের দ্বারা দেশের জনগণকে জিম্মি করে ফেলেছে।
বক্তরা আরও বলেন, বর্তমানে দেশে এক দলীয় স্বৈরশাসন কায়েম করেছে। অবাধে জনগণের সম্পদ, দেশের সম্পদ লুটপাট করে বিদেশে অর্থ পাচার করছে।
এসময় ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের নির্বাচনে মাছ মার্কার মেয়র প্রার্থী আব্দুস সালাম সুজন বলেন, ডিজিটাল ভোট কারচুপির অপরাধী নির্বাচন কমিশনের পদত্যাগ দাবি করছি। কারণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ইভিএমের মাধ্যমে ডিজিটাল পদ্ধতিতে ব্যাপক কারচুপি হয়েছে। এ নির্বাচনে জনগণের মতের কোনো প্রতিফলন হয়নি। এ নির্বাচন কমিশন সম্পূর্ণ ব্যর্থ। হুদা কমিশনের প্রতি জনগণের কোনো আস্থা নেই। এই কমিশন নির্লজ্জভাবে সরকারের নীলনকশা বাস্তবায়ন করছে।
তিনি বলেন, অবিলম্বে পদত্যাগ করে নির্দলীয় সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর করেন। নইলে জনরোষে পড়বেন। সিটি করপোরেশনের ঘোষিত ফলাফল বাতিল করেন। নতুন নির্বাচন কমিশনের অধীনে নির্বাচন দিতে হবে। নইলে জনগণ ঘরে বসে থাকবে না। জনগণকে সঙ্গে নিয়ে কঠোর কর্মসূচির মাধ্যমে এ কমিশনকে বাধ্য করব পদত্যাগে। প্রয়োজনে নির্বাচন কমিশন ঘেরাও-অবরোধের মতো কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে।
মানববন্ধনটিতে সভাপতিত্ব করেন সিপিবিএমের সাধারণ সম্পাদক ও ঢাকা দক্ষিণ সিটির মাছ মার্কার মেয়র প্রার্থী আব্দুস সালাম সুজন। এসময় আরও বক্তব্য রাখেন, গণতান্ত্রিক বাম ঐক্যের সমন্বয়কয় ও সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা হারুন চৌধুরী, সাম্যবাদী দলের কেন্দ্রীয় নেতা আবু মাসুম প্রমুখ।