কাগজ প্রতিবেদক: কিশোরগঞ্জ-১ (সদর-হোসেনপুর) আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের জন্য ভোট চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মঙ্গলবার বিকালে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে কিশোরগঞ্জ পুরাতন স্টেডিয়ামে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা ও প্রার্থীদের সাথে কথা বলার সময় জনতার উদ্দেশে আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদকের জন্য ভোট চান তিনি।

শেখ হাসিনা বলেন, সৈয়দ আশরাফ আজ অসুস্থ। সবার কাছে তার জন্য দোয়া চাই। তার নির্বাচনকে নিজেদের নির্বাচন মনে করে আপনারা করে দিবেন। আওয়ামী লীগ নেতাদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনারা সবাইকে নিয়ে আশরাফের পক্ষে কাজ করবেন।
এসময় ১/১১ এর সময় সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের প্রশংসনীয় ভূমিকার কথা স্মরণ করেন শেখ হাসিনা। তিনি আরও বলেন, কিশোরগঞ্জবাসী সব সময় নৌকায় ভোট দিয়ে আসছেন। আগামী নির্বাচনেও আপনারা নৌকায় ভোট দিবেন, যাতে আমরা উন্নয়নকে এগিয়ে নিতে পারি।

আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা বলেন, কিশোরগঞ্জের ১০টি উপজেলায় বিদ্যুৎ দিয়েছি। আরও তিনটি উপজেলায়ও ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ যাবে। কিশোরগঞ্জে একটি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করা হবে।

হাওরের উন্নয়ন বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, হাওরের উন্নয়নে ব্যাপক কর্মসূচি নিয়েছি। মিঠামইনে সেনাবাহিনীর একটি ক্যাম্প হচ্ছে। স্বাধীনতার সুফল যেন সব মানুষ পায়, সে লক্ষ্যে আওয়ামী লীগ কাজ করে যাচ্ছে।

ভিডিও কনফারেন্সে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট কামরুল আহসান শাহজাহান, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট এম.এ. আফজল, সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের ছোট ভাই ড. সৈয়দ মঞ্জুরুল ইসলাম, কিশোরগঞ্জ-২ আসনের প্রার্থী নূর মোহাম্মদ, কিশোরগঞ্জ-৩ আসনের প্রার্থী মুজিবুল হক চুন্নু, কিশোরগঞ্জ-৫ আসনের প্রার্থী আফজাল হোসেন, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট আতাউর রহমান, সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ শরীফ সাদী, হোসেনপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জহিরুল ইসলাম নূরু মিয়া ও সাধারণ সম্পাদক শাহ মাহবুবুল হকের সাথে কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কিশোরগঞ্জের ছয়টি আসনে মহাজোটের প্রার্থীদের ভোট দিয়ে বিজয়ী করার জন্য কিশোরগঞ্জবাসীর ভোট চান।

এ সময় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সৈয়দ আশফাকুল ইসলাম টিটুসহ সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের পরিবারের অন্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। বৃষ্টি ও ঠান্ডা আবহাওয়া উপেক্ষা করে হাজারো মানুষ স্টেডিয়ামে উপস্থিত হন।