বাংলাদেশ প্রতিবেদক: নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের একলাশপুর ইউপিতে গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে ধর্ষণের মামলায় বাদীর সাক্ষ্য নিয়েছে আদালত। এর আগে গত ১৭ ফেব্রুয়ারি আসামিদের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করেন আদালত।

বুধবার (১৮ আগস্ট) দুপুরে জেলা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল ১ এর বিচারক জয়নাল আবেদিন মামলার বাদীর স্বাক্ষ্য নেন। এ সময় মামলার দুই আসামি দেলোয়ার হোসেন দেলু ও আবুল কালাম আদালতে উপস্থিত ছিলেন।
রাষ্ট্র পক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের পিপি অ্যাডভোকেট মামুনুর রশিদ লাবলু। তিনি জানান, বাদীর সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে দুই আসামিকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ওই গৃহবধূর সাবেক স্বামী ২০২০ সালের ২ সেপ্টেম্বর রাতে তার সঙ্গে দেখা করতে তার বাবার বাড়ি জয়কৃষ্ণপুর গ্রামের ঘরে আসেন। এ সময় স্থানীয় দেলোয়ার হোসেন ওরফে দেলু রাত ১০টার দিকে দেলোয়ার তার বাহিনী নিয়ে গৃহবধূর ঘরে প্রবেশ করে অনৈতিক কর্মকান্ডের অভিযোগ করেন। তারপর গৃহবধূকে নির্যাতন করে বিবস্ত্র করে ভিডিও চিত্র ধারণ করে। এ ছাড়াও গৃহবধূর ঘরে ও একাধিক স্থানে দেলোয়ার তাকে ধর্ষণ করেন। এরপর গত ৪ অক্টোবর বিবস্ত্র নির্যাতনের ভিডিও চিত্র ফেসবুকে ভাইরাল হলে দেশে তোলপাড় সৃষ্টি হয়।
উল্লেখ্য, বেগমগঞ্জের একলাশপুর ইউপিতে গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন এবং ধর্ষণের ঘটনায় ২০২০ সালের ৬ অক্টোবর ভুক্তভোগী বাদি হয়ে দেলোয়ার হোসেন ও আবুল কালমকে আসামি করে বেগমগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করে। পরে ওই মামলায় অভিযুক্ত দুই আসামিকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরে এ ঘটনায় নির্যাতিতার দায়ের করা নির্যাতন, ধর্ষণ ও পর্নোগ্রাফি মামলা অধিকতর তদন্তের জন্য পিবিআইতে হস্তান্তর করা হয়।

Previous articleকালিহাতীতে র‌্যাবের অভিযানে ১৪০০ পিস ইয়াবাসহ যুবক আটক
Next articleহেফাজত আমির আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী আর নেই
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।