বাংলাদেশ প্রতিবেদক: ফতুল্লার বুড়িগঙ্গা ও ধলেশ্বরী নদীর মোহনায় ঢাকাগামী যাত্রীবাহী লঞ্চের সাথে যাত্রীবাহী একটি ট্রলারের মুখোমুখি সংঘর্ষে ধর্মগঞ্জ চতলারমাঠ ঘাটে ট্রলারডুবির ঘটনা ঘটেছে। এতে ৮ থেকে ১৯ জন নিখোঁজ রয়েছেন। নিখোঁজদের উদ্ধারে চলছে অভিযান।

বুধবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে ধর্মগঞ্জ চতলারমাঠ গুদরাঘাটস্থ বুড়িগঙ্গা নদীতে এ দুর্ঘটনার ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও প্রতক্ষদর্শীদের সাথে আলাপ করে জানা গেছে, সকাল সাড়ে ৮টার দিকে বক্তাবলী ঘাট থেকে ৪০-৫০ জন যাত্রী নিয়ে একটি ট্রলার ধর্মগঞ্জ চতলার মাঠ ঘাটে আসছিলো। অপরদিকে বরিশাল থেকে একটি যাত্রীবোঝাই লঞ্চ ঢাকার উদ্দেশ্যে যাচ্ছিলো। ধর্মগঞ্জ চতলারমাঠ গুদারাঘাট বরাবর লঞ্চ ও ট্রলারের সংঘর্ষ হয়। এতে ট্রলারটি ডুবে যায়। এ ঘটনার পর ট্রলারে থাকে ৩০-৩৫ জন যাত্রী তীরে উঠতে সক্ষম হয়। বেশ কয়েকজন নিখোঁজ রয়েছে বলেও জানান প্রত্যক্ষদর্শীরা।

সংবাদ পেয়ে ফায়ার সার্ভিস, নৌ পুলিশ, ফতুল্লা থানা পুলিশ, কোস্টগার্ড ও ডুবরি ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে উদ্ধার অভিযান শুরু করেছে।

ফতুল্লা মডেল থানার ওসি রকিবুজ্জামান জানান, যাত্রীবাহী লঞ্চের সাথে সংঘর্ষে ট্রলারটি ডুবে যায়। নিখোঁজের সংখ্যা সঠিকভাবে এখনো জানা যায়নি। লঞ্চের নামও জানা যায়নি। লঞ্চ থেকে ফেলা ৮টি বয়া পাওয়া গিয়াছে। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক আছে।

ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের নারায়ণগঞ্জ অফিসের উপসহকারী পরিচালক আবদুল্লাহ আল আরেফিন জানান, খবর পেয়ে দ্রুত আমাদের কয়েকটি টিম নদীতে উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছে। ওই ট্রলারের ৮-১০ জন যাত্রী নিখোঁজ রয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় লোকজন। অনেকে বলছেন তাদের স্বজন নিখোঁজ রয়েছে। আমরা বিষয়টি তদন্ত করে নিখোঁজের সংখ্যা জানার চেষ্টা করছি এবং উদ্ধার অভিযান অব্যাহত রেখেছি।

Previous articleখালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনায় শ্রমিক দলের দোয়া ও মোনাজাত
Next articleভাসানচরের উদ্দেশ্যে উখিয়া ছেড়েছে ৪১৪ রোহিঙ্গা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।