ফেরদৌস সিহানুক শান্ত: চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার মেঘনা ডেইরি ফার্মে কোরবানির জন্য প্রস্তুত করা হয়েছে ৩৫ মণ ওজনের একটি ষাঁড়। খামারি ধুসর সাদা রঙের ষাঁড়টির নাম রেখেছেন ‘মহারাজ’।

মেঘনা ডেইরি ফার্মের স্বত্বাধিকারী এসএম কামাল বলেন, ‘মহারাজের বয়স ৩ বছর। ছোট থেকেই তার সব কিছুতে ভিন্নতা দেখেছি। তার বয়সের অন্যান্য গরু-বাছুর বিক্রি করে দিলেও তাকে বিক্রি করিনি। এবার বিক্রি করবো।’
গো-খাদ্যের দাম চড়া উল্লেখ করে কামাল বলেন, ‘খৈল, ভুষি, ঘাস, ফিডসহ সব ধরণের খাদ্যের দাম বেড়েছে। আমার খামারে ১৬টা কোরবানির যোগ্য পশু আছে। বিক্রি করতে গিয়ে সঠিক দাম পাওয়া নিয়ে শঙ্কায় আছি।’

মহারাজের দেখভাল করেন সেরাজুল ইসলাম। তিনি বলেন, ‘মহারাজকে দিনে অন্তত ৫ বার গোসল করাতে হয়। প্রতিদিন ১০ কেজি ভুষি, ৮ কেজি খুদ আর কাঁচা ঘাসসহ মহারাজের প্রায় ৩০ লিটার পানি লাগে।’

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, মেঘনা ডেইরি ফার্মের কামাল সাহেব আমাদের কাছ পরামর্শ নেয়। আমরাও তাকে পরামর্শ দিই। এবার চাঁপাইনবাবগঞ্জ উপজেলায় ৩ হাজার ২৩৫টি খামারে ৪৪ হাজার ৮৯৬টি গবাদিপশু কোরবানির জন্য লালন-পালন করেছেন খামারিরা।

Previous articleএক শ্রেনীর ষড়যন্ত্রকারী দেশকে অস্থিতিশীল করতে মশগুল: খাদ্যমন্ত্রী
Next articleআফগানিস্তানে ভূমিকম্প: নিহতের সংখ্যা হাজার ছাড়িয়েছে
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।