টাঙ্গাইল প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের সখীপুরে এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে প্রায় ২০ দিন ধরে আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় রবিবার রাতে ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। মামলার পরই রাতেই অভিযুক্ত মজিবর রহমানকে (৪২) ও তার স্ত্রী আমেনা বেগমকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

উপজেলার কালিয়া ইউনিয়নের ধলীপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ আজ সোমবার সকালে গ্রেফতারকৃত মজিবুরকে ৫ দিনের রিমাণ্ড চেয়ে টাঙ্গাইল আদালতে পাঠিয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, মজিবুর রহমান ওই ছাত্রী মাদ্রাসা যাওয়ার পথে কুপ্রস্তাব দিত। তবে ছাত্রীটি কুপ্রস্তাবে রাজি হয়নি। এ অবস্থায় গত ২৪ ডিসেম্বর ওই ছাত্রী উপজেলার কালিয়া বাজারে কেনাকাটার জন্য যায়। এরপর থেকেই ওই ছাত্রীকে আর পাওয়া যায়নি।

মামলায় আরো উল্লেখ করা হয়, মজিবর কালিয়া বাজার থেকে ওই ছাত্রীকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। এরপর থেকে তাকে আটকে রেখে একাধিকবার জোরপূর্বক ধর্ষণ করা হয়।
এ ব্যাপারে সখীপুর থানার ওসি আমির হোসেন আজকের কাগজকে বলেন, মামলা দায়েরের পর পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করেছে। পরে সোমবার সকালে মজিবরকে ৫ দিনের রিমান্ড চেয়ে টাঙ্গাইল আদালতে পাঠানো হয়েছে।

Previous articleচট্টগ্রামে যাত্রীবাহী বাসে আগুন
Next articleইত্যাদির সেই গায়ক আকবর অসুস্থ, প্রধানমন্ত্রীর সাহায্য কামনা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।