বাউফলে ইলিশ শিকারের অপরাধে ১৪ জেলের কারাদন্ড

অতুল পাল: বাউফলের তেঁতুলিয়া নদীর ধুলিয়া ও দুর্গাপাশা পয়েন্টে সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ইলিশ শিকারের অপরাধে শনিবার সন্ধায় (১২ অক্টোবর) ১৪ জেলেকে আটক করে অর্থদন্ডসহ বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও বাউফল উপজেলা নির্বাহী অফিসার পিজুস চন্দ্র দে। এসময় ২০ হাজার মিটার কারেন্ট জাল ও ৪০ কেজি মা ইলিশও জব্দ করা হয়। আটককৃত জাল পুড়িয়ে দেয়া হয়েছে এবং জব্দকৃত ইলিশ বিভিন্ন এতিমখানায় বিলিয়ে দেয়া হয়েছে। আটককৃত জেলেদের মধ্যে বাকেরগঞ্জ উপজেলার দুর্গাপাশা গ্রামের ফারুক হাওলাদার, মঞ্জু খান, ষাহ আলম, কালাম হাওলাদার, সোহেল হাওলাদার ও হারুন হাওলাদারকে ৬ মাস এবং রোকন, সায়েম ও জুয়েলকে ১ মাস করে কারাদন্ড দেয়া হয়। এছাড়া বাউফলের ধুলিয়া এলাকার মারুফ, হাসান, রিয়াদ, নিরব ও খোকন ব্যাপারিকে ৫ হাজার টাকা করে অর্থদন্ড দেন। বাউফল উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা জসীম উদ্দিন জানান, অভিযানে কোস্টগার্ড, কালাইয়া নৌ পুলিশ, উপজেলা প্রশাসন ও মৎস্য অধিদপ্তর অংশ গ্রহণ করেন। তিনি আরো বলেন, তেঁতুলিযা নদীকে কঠোর নজরদারির মধ্যে রাখা হয়েছে। নিষেধাজ্ঞা অমান্যকারীদের কোনভাবেই ছাড় দেয়া হবে না। উপজেলা নির্বাহী অফিসার পিজুস চন্দ্র দে বলেন, শত প্রতিকুলতার মধ্যেও নদীতে অভিযান অব্যহত রয়েছে। অভিযানে কোস্ট গার্ড, নৌ পুলিশ, মৎস্য অধিদপ্তর এবং উপজেলা প্রশাসন সক্রিয় রয়েছে। কোনভাবেই নিষেধাজ্ঞাকালীন সময়ে ইলিশ শিকার করতে দেয়া হবে না।