বাংলাদেশ প্রতিবেদক: নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলায় নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে (১৪) যৌন হয়রানির প্রতিবাদে অভিযুক্ত শিক্ষকের বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও সড়ক অবরোধ করেছে শিক্ষার্থীরা। পরে পুলিশ অভিযুক্ত শিক্ষককে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

রোববার (৬ নভেম্বর) বেলা সােয়া ৯টার দিকে উপজেলার নোয়াখলা ইউনিয়নের তালতলা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এ কর্মসূচি পালন করে। এর আগে,গতকাল শনিবার সকালে প্রাইভেট পড়তে গেলে বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ওই ছাত্রীকে যৌন হয়রানি করে একই বিদ্যালয়ের গণিত বিভাগের শিক্ষক মো.সাইফুল ইসলাম (৩২)। তিনি একই ইউনিয়নের করিহাটি গ্রামের হোসাইন আহম্মদের ছেলে।

তালতলা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক উত্তম কুমার পাল জানান,গতকাল শনিবার সকালে তালতলা উচ্চ বিদ্যালয়ের একটি ভবনে একই বিদ্যালয়ের গণিত বিভাগের শিক্ষক মো.সাইফুল ইসলামের কাছে প্রাইভেট পড়তে যায় নবম শ্রেণির এক শিক্ষার্থী। সেখানে গণিত শিক্ষক সাইফুল ইসলাম ওই ছাত্রীকে যৌন হয়রানি করে। কে বা কাহারা এ ধরনের একটি আপত্তিকর ভিডিও গোপনে মুঠোফোনে ধারণ করে নেয়। শনিবার রাত ১১টার দিকে আমি বিষয়টি জানতে পারি। আজ রোববার সকাল ৯টার দিকে বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখি অভিযুক্ত শিক্ষকের শাস্তির দাবিতে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ মিছিল শেষে সড়ক অবরোধ করে। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

চাটখিল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.গিয়াস উদ্দিন জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। অভিযুক্ত শিক্ষককে আটক করা হয়েছে। লিখিত অভিযোগ পেলে পরবর্তীতে এ বিষয়ে আইনগত প্রদক্ষেপ নেওয়া হবে।

চাটখিল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মুহাম্মদ ইমরানুল হক ভূঁইয়া জানান, ঘটনাটি সোশ্যাল মিডিয়াতে প্রকাশিত হয়েছে। এ বিষয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। অভিযুক্ত শিক্ষককে বিদ্যালয় থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

Previous articleনতুন কোনো মেগা প্রকল্পের পরিকল্পনা নেই: ওবায়দুল কাদের
Next articleএখনই জেলে যাওয়া নিয়ে ভাবতে শুরু করেছেন কেন: কাদেরকে ফখরুল
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।