সোমবার, জুন ১৭, ২০২৪
Homeসারাবাংলাউলিপুরে দুর্বৃত্তদের দেয়া আগুনে ৯টি দোকান ঘর পুড়ে ছাই

উলিপুরে দুর্বৃত্তদের দেয়া আগুনে ৯টি দোকান ঘর পুড়ে ছাই

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: কুড়িগ্রামের উলিপুরে দুর্বৃত্তদের দেয়া আগুনে ৯টি দোকান ঘর পুড়ে ছাই হয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ সময় নৈশপ্রহরীর ধাওয়ায় দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যান। এতে প্রায় ২০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে ব্যবসায়ীরা দাবী করেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে, শনিবার (২৪ জুন) উপজেলার স্লুইচগেট সংলগ্ন বাজার এলাকায়।

এলাকাবাসী ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার দলদলিয়া ইউনিয়নের স্লুইচগেট সংলগ্ন বাজার এলাকায় শনিবার ভোর রাতে দুইজন অজ্ঞাত ব্যক্তি বাজারের একটি দোকান ঘরে আগুন লাগিয়ে দেয়। এ সময় বাজারের নিরাপত্তাপ্রহরী বাবলু মিয়া ও শাহ্ আলম আগুন লাগানোর ঘটনা দেখতে পেয়ে ধাওয়া করলে তারা পালিয়ে যায়। এদিকে তাদের দেয়া আগুনে বাজারের ৯টি দোকান ঘর পুড়ে ছাই হয়েছে। পরে খবর পেয়ে উলিপুর ফায়ার সার্ভিস এ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের গাড়ি এসে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে।

নিরাপত্তাপ্রহরী বাবলু মিয়া ও শাহ্ আলম জানান, গভীর রাতে বাজারের একটি দোকানের পিছনে শব্দ পেয়ে তারা এগিয়ে গেলে সেখানে গিয়ে আগুন জ্বলতে দেখেন। এসময় সেখান থেকে দুইজন অজ্ঞাত ব্যক্তিকে পালিয়ে যেতে দেখেন।

ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ী মোস্তাফিজার রহমান, উজ্জল সরকার, উমর ফারুক, শফিকুল ইসলাম, আব্দুল জলিল, সাহেব আলী, আনিছুর রহমান, চাঁদ মিয়া, আসাদুল ইসলাম বলেন, আমাদের এই বাজারে কাপড়ের দোকান, রশি, লোহা, গালামাল, চায়ের দোকান ও কম্পিউটারের ব্যবসা ছিল। আমরা সবাই ঈদের আগে ব্যবসা করতে নতুন মালামাল ক্রয় করেছিলাম। কিন্তু দুর্বৃত্তদের দেয়া আগুনে আমাদের সব পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এতে আমাদের প্রায় ২০ লাখ টাকার ক্ষতি সাধন হয়েছে। তারা আরোও বলেন, আগুন লাগার পূর্ব থেকেই এলাকায় বিদ্যুৎ ছিল না। ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়িরা কান্না জড়িত কন্ঠে বলেন, ধারদেনা করে লাভের আশায় দোকানে মাল তুলেছিলাম আগুনে সব শেষ করে দিল। এখন পরিবার পরিজন নিয়ে আমরা বিপদে পড়েছি। আমাদের ঈদের আনন্দ শেষ।

উলিপুর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের ষ্টেশন অফিসার আব্বাস আলী বলেন, প্রায় ২ ঘন্টা চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রনে এসেছে। সেখানে ৯টি দোকান পুড়ে যায়। আগুনের উৎস জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমাদের কাছে ৩ রকমের তথ্য এসেছে। বাজারের নৈশপ্রহরী বলছেন, অজ্ঞাত দুই দুর্বৃত্ত আগুন লাগিয়েছেন। এছাড়া চায়ের দোকান থেকেও আগুনে উৎপত্তি হতে পারে ও বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকেও হতে পারে। তদন্ত সাপেক্ষে প্রকৃত ঘটনা বেড়িয়ে আসবে।

দলদলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান লিয়াকত আলী সরকার স্লুইচগেট বাজারে ৯টি দোকান পুড়ে যাওয়ার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

উলিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শেখ আশরাফুজ্জামান বলেন, ঘটনাস্থলে আমরা গিয়েছিলাম। আগুনের উৎস সম্পর্কে ফায়ার সার্ভিস বলতে পারবে। আমরা তদন্ত করে দেখছি দুস্কৃতকারীরা জড়িত কি না।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerbangladesh.com.bd/
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments