বাংলাদেশ ডেস্ক: রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বৃহস্পতিবার সতর্ক করে বলেছেন, জ্বালানি তেলের সর্বোচ্চ মূল্যসীমা নির্ধারণ করে দেয়ার পশ্চিমা পরিকল্পনা জ্বালানি বাজারের জন্য ‘গুরুতর পরিণতি’ সৃষ্টি করতে পারে।

ইরাকের প্রধানমন্ত্রীর সাথে টেলিফোনে কথোপকথনের সময় তিনি এমন মন্তব্য করেন।

ইরাকের প্রধানমন্ত্রী মোহাম্মাদ শিয়া আল-সুদানির সাথে রাশিয়ার নেতার ফোনালাপের উদ্ধৃতি দিয়ে ক্রেমলিন জানায়, ‘ভ্লাদিমির পুতিন জোর দিয়ে বলেছেন, এ ধরনের পদক্ষেপ বাজার সম্পর্কের নীতির পরিপন্থী এবং এতে বৈশ্বিক জ্বালানি বাজারের জন্য মারাত্মক পরিণতি ডেকে আনার সম্ভাবনা রয়েছে।’

ক্রেমলিন জানায়, এক্ষেত্রে উভয় পক্ষ ওপেক প্লাস কাঠামোর মধ্যে এ দু’দেশের কাজ সম্পর্কে ইতিবাচক কথা বলেছে। যা ‘বৈশ্বিক তেলের বাজারকে স্থিতিশীল করতে সহায়তা করবে।’

পুতিন গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে সৈন্য পাঠানোর পর পশ্চিমা দেশগুলো রাশিয়ার বিরুদ্ধে নজিরবিহীন নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে।

মঙ্গলবার মার্কিন রাজস্ব বিভাগ জানায়, ওয়াশিংটন ও মিত্ররা এখন ‘আগামী কয়েক দিনের মধ্যে’ রাশিয়ার জ্বালানি তেলের মূল্যসীমা চূড়ান্ত করে দেয়ার পরিকল্পনা করছে। কারণ, তারা মস্কোর অর্থায়নের একটি গুরুত্বপূর্ণ উৎস বন্ধ করতে চাইছে।

এ মূল্যসীমা আগামী ৫ ডিসেম্বর থেকে কার্যকর হতে যাওয়া একটি নিষেধাজ্ঞার ভিত্তি হবে, যা নির্দিষ্ট মূল্যের বেশি দামে বিক্রি হওয়া রাশিয়ার তেলের চালানের জন্য পরিবহন বা বীমা প্রদানে সংস্থাগুলোকে নিষিদ্ধ করবে।

Previous articleশীতের আগমনে কদর বাড়ছে গরম কাপড়ের
Next articleডিমলায় শিশুদের স্কুলে ফিরিয়ে আনতে প্রীতি ফুটবল টুর্নামেন্ট
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।