বাংলাদেশ ডেস্ক: লিবিয়া হয়ে ইউরোপে প্রবেশের আশায় ভূমধ্যসাগরীয় অঞ্চলে নৌকা নিয়ে যাত্রা করা ২৬৪ বাংলাদেশি নাগরিককে বৃহস্পতিবার উদ্ধার করেছে তিউনিশিয়ার কোস্টগার্ড। মিসরের সংবাদমাধ্যম আহরাম অনলাইনের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

তিউনিশিয়ার কোস্টগার্ড বলেছে, নৌকাটিতে ২৬৭ জন ছিলেন। এর মধ্যে ৩ জন মিসরের নাগরিক। নৌকা ভেঙে যাওয়ার পর তারা উপকূলে আটকা পড়েন।

কোস্টগার্ড বলেছেন, তিউনিশিয়া প্রশাসন অভিবাসন প্রত্যাশীদের লিবিয়া সীমান্তের বেন গর্দান বন্দরে পৌঁছাতে সাহায্য করেন। তারপর তাদেরকে আইওএম এবং রেড ক্রিসেন্টের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে।

আইওএমের বিবৃতি থেকে জানা গেছে, তিউনিশিয়ান আইল্যান্ড জেরবার একটি হোটেলে রাখা কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে তাদের।

আইওএমের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, লিবিয়া হয়ে ইউরোপে যাওয়ার সময় গত জানুয়ারি থেকে এক হাজারের বেশি মানুষ তিউনিশিয়ায় আটকা পড়েন। এমন মানুষের সংখ্যা দিনকে দিন বাড়ছে।

জাতিসংঘের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ২০২১ সালের জানুয়ারি থেকে এপ্রিল পর্যন্ত মোট ১১ হাজার অভিবাসী প্রত্যাশী মানুষ লিবিয়া হয়ে ইউরোপে প্রবেশের চেষ্টা করেছেন। গত বছর এই সময়ের তুলনায় এবার এই সংখ্যা ৭০ শতাংশ বেশি!

লিবিয়ার নাজুক অবস্থার কারণে অভিবাসীরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে এভাবে সাগরে ভাসছেন বলে মনে করছে আইওএম। তিউনিশিয়ার শরণার্থী শিবিরগুলো কানায়-কানায় পূর্ণ বলে জানিয়েছে রেড ক্রিসেন্ট।

Previous articleটাঙ্গাইলে এজেন্ট ব্যাংকিংয়ের কোটি টাকা নিয়ে ছাত্রলীগ নেতা উধাও
Next articleফ্যাসিবাদের প্রধান অস্ত্র গুম-খুন: মির্জা ফখরুল
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।