বাংলাদেশ ডেস্ক: মালয়েশিয়া ইমিগ্রেশনের অভিযানে বাংলাদেশীসহ ৯৫ জন অবৈধ অভিবাসী আটক হয়েছেন। মঙ্গলবার গভীর রাতে জালান দেওয়ান সুলতান সুলাইমান ১-এর পাঁচতলা দোকানঘরে সারিবদ্ধভাবে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

তিন ঘণ্টার অভিযানে ১৫০ জন অভিবাসীকে আটক করা হয়। পরে তাদের মধ্যে ৯৫ জন অভিবাসীর কোনো বৈধ কাগজপত্র না থাকায় তাদের আটক করা হয় ও বাকিদের ছেড়ে দেয়া হয়।

আটকদের মধ্যে ৫২ জন পুরুষ ও ৪৩ জন নারী রয়েছেন। এর মধ্যে ইন্দোনেশিয়ার, বাংলাদেশের, নেপালের ও পাকিস্তানের নাগরিক রয়েছেন বলে জানিয়েছেন কুয়ালালামপুর ফেডারেল টেরিটরি ইমিগ্রেশন ডিরেক্টর স্যামসুল বদরিন মহসিন। তবে এ অভিযানে কতোজন বাংলাদেশী আটক হয়েছেন তা এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত জানা যায়নি।

কুয়ালালামপুর ফেডারেল টেরিটরি ইমিগ্রেশন ডিরেক্টর স্যামসুল বদরিন মহসিন জানান, অভিযান চালানোর আগে দীর্ঘ দিন ধরে অবৈধ অভিবাসীদের কার্যকলাপ ও গতিবিধি পর্যবেক্ষণ করে আসছিল দেশটির এফোর্সমেন্টের কর্মকর্তারা। আটকরা বেশিরভাগই নির্মাণ সাইটে পরিচ্ছন্নতাকর্মী ও শ্রমিক হিসেবে কাজ করছিলেন।

তিনি আরো বলেন, অনেকের পাসপোর্টের মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে এবং কারো কারো কাছে কোনো বৈধ ভ্রমণ নথি নেই ও অবৈধভাবে এলাকায় বসবাস করছিলেন। এছাড়া তাদের বাসস্থানটিও খুব বিপজ্জনক ছিল।

আটককৃতদের বুকিত জলিল ইমিগ্রেশন ডিপোতে রাখা হয়েছে এবং ইমিগ্রেশন আইন ১৯৫৯/৬৩ এর ধারা ৬ (১) (সি) এবং ১৫ (১) (সি) এর অধীনে আরোও তদন্ত করা হবে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।

Previous articleফারুকের অনুপস্থিতিতে দুর্নীতির অভিযোগে ব্যক্তিগত সহকারীকে অব্যাহতি
Next articleআমার শিল্পীজীবনে তৃষ্ণা আছে, অপ্রাপ্তি নেই: রুনা লায়লা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।