বাংলাদেশ প্রতিবেদক: রাত পোহালেই মাঠে নামছে বাংলাদেশ। প্রতিপক্ষ বাবর আজমের পাকিস্তান। সুপার টুয়েলভ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে মুখোমুখি হবে দুই দল। দুই দলের সামনেই সেমিফাইনালে যাবার শেষ সম্ভাবনা এই ম্যাচটি। অ্যাডিলেড ওভালে আগামীকাল বাংলাদেশ সময় সকাল ১০টায় শুরু হবে ম্যাচটি।

কাগজে কলমে দুই দলের সুপার টুয়েলভ পর্বের শেষ ম্যাচ হলেও, বাস্তবতার চোখে ম্যাচটি হতে পারে এবারের বিশ্বকাপে উভয় দলেরই সম্ভাব্য শেষ ম্যাচ। জয়ী দলের হয়তো অল্প সময়ের জন্য খানিকটা সম্ভাবনা থেকে যাবে, তবে দিনের শেষ ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকা নেদারল্যান্ডসকে হারিয়ে দিলে, দক্ষিণ আফ্রিকাই সেমিতে পা রাখবে। ফলে বাংলাদেশ-পাকিস্তান মধ্যকার জয়ী দলকেও বিদায় নিতে হবে এবারের আসর থেকে।

তাই বলাই যায়, দুই দলের ভাগ্যই এখন এক সুতোয় গাঁথা। ফলে এখন উভয় দলের লক্ষ্য, উদ্দেশ্য এক ও অভিন্ন। দুই দলই জিততে মরিয়া। সেমিফাইনাল ভাগ্য দক্ষিণ আফ্রিকার হাতে দিয়ে তাই দুই দলই অন্তত জয় নিয়ে বিশ্বকাপ শেষ করতে চাইবে। জয় নিয়েই দেশের বিমান ধরতে চাইবে।

এর আগে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে বাংলাদেশ পাকিস্তানের মুখোমুখি হয়েছে ১৭ বার। যা প্রতিপক্ষ হিসেবে বাংলাদেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। এই ১৭ দেখায় বাংলাদেশ হেসেছে মাত্র ২ ম্যাচে, বাকি ১৫ বারই জয়ী দলের নাম পাকিস্তান। ২০১৫ ও ২০১৬ সালে পরপর দুই ম্যাচে পাকিস্তানকে হারিয়েছিল বাংলাদেশ। তবে পরের ও শেষ ৮ দেখায় আর একবারও হারাতে পারেনি তাদের।

সর্বশেষ বিশ্বকাপের আগে নিউজিল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজে পাকিস্তানের বিপক্ষে দুটো ম্যাচ খেলে টাইগাররা। দুটো ম্যাচেই পাকিস্তান জিতলেও শেষ ম্যাচে বেশ প্রতিদ্বন্দ্বীতা গড়ে তোলে বাংলাদেশ। একবল বাকি থাকতে সমাধান হয় ম্যাচের। তবে বিশ্বকাপে ৫ বার পাকিস্তানের মুখোমুখি হয়েছে বাংলাদেশ। পাকিস্তান জিতেছে সবগুলো ম্যাচে, একটি জয়ও নেই বাংলাদেশের।

Previous articleএ সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচন হবে না: মির্জা ফখরুল
Next articleমৌলভীবাজারে নিউমোনিয়া-ডায়রিয়ার প্রকোপ, একজনের মৃত্যু
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।