পাবনায় জাম্বুরার লোভ দেখিয়ে চার বছরের শিশুকে ধর্ষণ

কামাল সিদ্দিকী: জাম্বুরা খাওয়ানোর লোভ দেখিয়ে বাড়ির পাশে একটি বাগানের ভিতরে নিয়ে নাঈম (১৫) নামের এক কিশোর চার বছরের এক শিশুকে ধর্ষণ করেছে । আজ সোমবার দুপুরে পুলিশ আদালতের মাধ্যমে ধর্ষককে জেল হাজতে পাঠিয়েছে। নাঈম ওই গ্রামের মোখলেছুর রহমানের ছেলে। রোববার (২৯ সেপ্টেম্বর) বিকেলে পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলার খানমরিচ ইউনিয়নের সুলতানপুর গ্রামে এই ধর্ষনের এই ঘটনা ঘটে। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, সুলতানপুর গ্রামের চার বছরের শিশুকে জাম্বরা খাওয়ানোর লোভ দেখিয়ে বাড়ির পাশে একটি বাগানের মধ্যে রোববার (২৯ সেপ্টেম্বর) বিকেলে নিয়ে যায় নাঈম। এ সময় শিশুটিকে ধর্ষণ করলে শিশুটির চিৎকারে স্থানীয় লোকজন ছুটে আসে। এ সময় ধর্ষক নাঈম পালানোর সময়ে স্থানীয় লোকজন তাকে আট করে পুলিশে সোর্পদ করে। গুরুত্বর অসুস্থ্য শিশুকে প্রথমে ভাঙ্গুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। ভাঙ্গুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা. হালিমা খানম বলেন, হাসপাতালে ভর্তির পর শিশুকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। পরীক্ষার জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ভাঙ্গুড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুদ রানা সোমবার বিকেলে জানান, ধর্ষণের অভিযোগে শিশুর বাবা বাদী হয়ে রোববার রাতে (২৯ সেপ্টেম্বর) নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেছেন। আটককৃত নাঈমকে সোমবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। যৌন হয়রানী নির্মূল করন নেটওয়ার্ক, পাবনার আহবায়ক হাসিনা আক্তার রোজি এক বিবৃতিতে এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও ধর্ষকের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবী জানিয়েছেন।