প্রবাসীর কাছে স্ত্রীর পরকীয়ার আপত্তিকর ভিডিও: অতঃপর খুন হলেন সেলিম

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: বগুড়ায় দুপঁচাচিয়ার বড়কোলা মাঠে আলোচিত সেলিম হত্যাকাণ্ডের মোটিভ উদঘাটন করেছে পুলিশ। শনিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে বগুড়া পুলিশ সুপার কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঁইয়া জানান, পরকীয়ার কারণেই মূলত খুন হয়েছেন রং মিস্ত্রি সেলিম প্রামানিক।

৪ ফ্রেব্রুয়ারি রাতে খুনের পর ৫ ফেব্রুয়ারি পুলিশ বড়কোলা গ্রামের ফসলী মাঠ থেকে মরদেহ উদ্ধার করে। খুনের অভিযোগে রূপালী বেগম এবং তার বাবা আব্দুর রহমান নামের দু’জনকে আটক করেছে পুলিশ।

আসামিদের স্বীকারোক্তির উদ্ধৃতি দিয়ে পুলিশ সুপার জানান, রূপালী বেগমের স্বামী বিদেশে থাকায় পরকীয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়েন সেলিমের সঙ্গে। এরপর সেলিম রূপালীকে বিয়ে করার জন্য চাপ সৃষ্টি করেন। এতে রূপালী রাজি না হওয়ায় তাদের আপত্তিকর গোপন ভিডিও তার স্বামীর কাছে পাঠিয়ে দেন।

এতে ক্ষিপ্ত হয়ে পরিকল্পনা মতে সেলিমকে খুন করা হয়। সেলিমের দুপঁচাচিয়া গ্রামের খিদিরপাড়ার কফির উদ্দিনের ছেলে। আসামিদের বাড়িও একই গ্রামে।

এ ব্যাপারে দুঁপচাচিয়া থানায় সেলিমের বাবা কফির উদ্দিন বাদী হয়ে মামলা করেছেন।