বাংলাদেশ প্রতিবেদক: সুনামগঞ্জের ধর্মপাশায় হেফাজতের তাণ্ডবের ছবি ফেসবুকে শেয়ার করার অপরাধে হাতকড়া পরিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগ নেতাকে হেনস্তার ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ঘটনায় ধর্মপাশা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেলোয়ার হোসেনসহ দুই পুলিশ এসআইকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

বুধবার (৮ এপ্রিল) রাতে ঢাবি ছাত্রলীগের আন্তর্জাতিক উপকমিটির সম্পাদক ও এফ রহমান হল ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আফজল খান বাদী হয়ে ২৯ জনের নাম উল্লেখ্য করে ও অজ্ঞাতনামা ৩০ জনকে আসামি করে ধর্মপাশা থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

উল্লেখ্য, গত ৬ এপ্রিল বিকেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের আন্তর্জাতিক উপকমিটির সম্পাদক ও এফ রহমান হল ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আফজল খানকে ধর্মপাশা উপজেলার জয়শ্রী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে অবরুদ্ধ করে ধর্ম অবমাননার অভিযোগ এনে হেনস্তা করা হয়। ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও স্থানীয় এমপি মোয়াজ্জেম হোসেন রতনে চাচা আবুল হাসেম আলমের ছেলে আল মোজাহিদ তার সমর্থকদের নিয়ে আফজল খানকে হেনস্তা করে। গুজব ছড়িয়ে পরিস্থিতি উত্তপ্ত করে।

এ সময় পুলিশও ঘটনাস্থলে পৌঁছে ছাত্রলীগ নেতাকে হাতকড়া পরিয়ে জোরপূর্বক ক্ষমা চাওয়ায়। এ সময় ওই ছাত্রের বাবাকেও তারা লাঞ্ছিত করে। এ খবর পেয়ে ঢাবি ছাত্রলীগ ও কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে দোষীদের শাস্তি দাবি করে।

গত ৭ এপ্রিল বিকেলে আবুল হাসেমকে আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার করে দায়ের করা মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়। এ ঘটনার অন্যতম হোতা রফিক নামের আরেকজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

ধর্মপাশা থানার সহকারী পুলিশ সুপার সুজন চন্দ্র সরকার বলেন, ছাত্রলীগ নেতা লাঞ্ছিত হওয়ার ঘটনায় দুজন গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকি আসামিদের ধরতে পুলিশের অভিযান চলছে।

Previous articleকরোনা নয়, বিএনপি দমনে মরিয়া সরকার: ফখরুল
Next article‘শিশু বক্তা’ মাদানী কারাগারে, তার মাদ্রাসায় তালা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।