বাংলাদেশ প্রতিবেদক: নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের চৌমুহনী পৌরসভা এলাকায় রিকশাচালক আবুল হোসেন হত্যার ঘটনায় প্রধান আসামিকে বেনাপোল বাজার থেকে আটক করেছে বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশ।

আটককৃত নুরুল আমিন মোর্শেদ (৫৮) নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার চৌমুহনী পৌরসভার ৫নম্বর ওয়ার্ডের গনিপুর গ্রামের আলী আকবরের ছেলে।

গতকাল রোববার (১৯ সেপ্টেম্বর) বিকালে বেনাপোল স্কুল মার্কেটের সামনে থেকে তাকে আটক করা হয়।

বেনাপোল পোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মামুন খাঁন জানান, গোপন খবরের ভিত্তিতে তাকে বেনাপোল হাইস্কুলে মার্কেটের সামনে থেকে তাকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় বেগমগঞ্জ থানায় মোর্শেদকে প্রধান আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের হয়। বিষয়টি বেগমগঞ্জ থানায় জানানো হয়েছে। অভিযুক্ত আসামিকে বেগমগঞ্জ থানা পুলিশের হাতে সোপর্দ করা হবে।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) দুপুর দেড়টার দিকে নোয়াখালীল বেগমগঞ্জের চৌমুহনী পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের গনিপুর গ্রামে ১০ টাকা রিকশা ভাড়া বেশি চাওয়ায় বাগবিতণ্ডার জেরে রিকশাচালক আবুল হোসেনকে কুপিয়ে হত্যা করেছে রিকশাযাত্রী মোর্শেদ। পরে ঘটনার সাথে সাথে অভিযুক্ত আসামি গাঢাকা দেয়।

স্থানীয় সূত্র জানায় ,দুপুর পৌনে ২টার দিকে রিকশাচালক আবুল হোসেন চৌমুহনী রেলস্টেশন থেকে এক ব্যক্তিকে নিয়ে গনিপুর গ্রামে ভাড়া নিয়ে যায়। একপর্যায়ে ওই যাত্রীর সঙ্গে ভাড়া নিয়ে তার বাগবিতণ্ডা হয়। পরে ওই যাত্রী ১০ টাকা রিকশা ভাড়া বেশি চাওয়ার জেরে তার বাড়ি থেকে দা এনে রিকশাচালকের গলায় কোপ দেয়। এতে তার গলার শ্বাসনালি কিছু অংশ কেটে যায়। পরবর্তীতে স্থানীয় লোকজন গুরুতর আহত অবস্থায় রিকশাচালককে ২৫০ শয্যা নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে ১ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি করেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুর সোয়া ২টার দিকে তিনি মারা যান।

Previous articleশারীরিক নির্যাতনের শিকার তরুণী বিচার না পেয়ে এখন মানসিক প্রতিবন্ধী !
Next articleহৃদয়ের প্রাণ: আদিত্য রহমান
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।