বাংলাদেশ প্রতিবেদক: রংপুরের মিঠাপুকুরে স্বামীর স্পর্শকাতর অঙ্গ কেটে নিয়ে উধাও হয়ে গেছেন স্ত্রী। আহত যুবককে আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ (রমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সোমবার (২৪ জানুয়ারি) দিবাগত রাতে উপজেলার পায়রাবন্দ ইউনিয়নের দমদমা শিমুলপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

মিঠাপুকুর থানার ওসি মোস্তাফিজার রহমান জানান, দমদমা বাজারের পাশে শিমুলপাড়া গ্রামের ফুলবাবু ওরফে ফুলমিয়ার ছেলে সোলাইমান মিয়া (২৭) ট্রাকচালকের সহকারী। এক সময় মাগুরা জেলার এক নারীর সাথে মোবাইল ফোনে সম্পর্ক গড়ে উঠে সোলাইমান মিয়ার। দুই বছর আগে মাগুরা জেলার ওই নারী রাহেনা বেগমের (৩৫) সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন সোলাইমান।

গত ৬-৭ মাস আগে সোলাইমান গ্রামের বাড়ি মিঠাপুকুরে তার স্ত্রীকে নিয়ে সংসার শুরু করেন। সংসার জীবনের এক পর্যায়ে স্বামী পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েছেন বলে অভিযোগ তোলেন রাহেনা বেগম। অন্যদিকে সোলাইমান অভিযোগ তোলেন, স্ত্রীর বয়স তার চেয়ে বেশি। রাহেনা তাকে জোর করে বিয়ে করতে বাধ্য করেছে। এ নিয়ে তাদের মধ্যে সপ্তাহে ২-৩ বার ঝগড়া চলতো।

ওসি জানান, সোমবার (২৪ জানুয়ারি) রাতে খাওয়া শেষে তারা ঘুমিয়ে পড়েন। তবে রাত গভীর হলে, আনুমানিক ৩টার দিকে স্ত্রী রাহেনা বেগম হঠাৎ তার স্বামী সোলাইমান মিয়ার গোপন অঙ্গ কেটে নিয়ে পালিয়ে যান।

খবর পেয়ে আমরা আহত যুবককে উদ্ধার করে যশোর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠিয়েছি। তবে এখনো খোঁজ মেলেনি সোলাইমানের স্ত্রী রাহেনা বেগমের।

Previous articleসরকার ওয়ানস্টপ সার্ভিস প্রদানে উদ্যোগ নিয়েছে: প্রধানমন্ত্রী
Next articleঈশ্বরদীতে গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।