শহিদুল ইসলাম: বুস্ট এডুকেশন সার্ভিসের বিজনেস ডেভেলপমেন্টের ম্যানেজার হিসেবে স্থায়ী ভাবে নিয়োগ পেয়েছেন মিসেস শ্যামা সাহা।

শনিবার বিজনেস ডেভেলপমেন্টের সিইও ডক্টর মোহাম্মদ শফিক তাকে নিয়োগ প্রদান করেন।

সম্প্রতি অনাকাঙ্খিত ঘটনার জন্য বুস্ট এডুকেশন সার্ভিস তাকে বরখাস্ত করে। পরে বুস্ট এডুকেশন সার্ভিসের সিইও ডঃ মোহাম্মদ শফিক ঘটনাটির সুষ্ঠ তদন্ত করেছেন। পাশাপাশি তিনি এইচআর এবং মিসেস শ্যামা সাহার মধ্যে ভুল বোঝাবুঝির বিষয়টি চিহ্নিত করেছেন।

বুস্ট এডুকেশন সার্ভিস বাংলাদেশ শাখায় নতুন এইচ আর ম্যানেজার হিসেবে নিয়োগ করা হয়েছে।

সিইও ডক্টর মোহাম্মদ শফিক বলেন, দুর্ভাগ্যবশত, এইচআর স্পষ্ট ন্যায্যতা এবং কর্মক্ষমতা পর্যালোচনা ছাড়াই মিসেস শ্যামা সাহাকে বরখাস্ত করা হয়েছিলো।যে অভিযোগে মিসেস শ্যামা সাহার বরখাস্ত হওয়ার কোনো সম্পর্ক ছিল না এবং আমাদের সংগঠনে কোনো বৈষম্য নেই। মিসেস শ্যামা সাহা এবং বুস্ট এডুকেশন সার্ভিস,ঢাকা শাখার উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের মধ্যে সংঘটিত স্পষ্ট ভুল বোঝাবুঝির অবসান করে তাকে আবার স্হায়ীভাবে পদে পুর্নবহাল করেছি।

নিয়োগ পেয়ে শ্যামা সাহা বলেন, বুস্ট এডুকেশন সার্ভিস একটি প্রতিষ্ঠিত ও সুনামধন্য এডুকেশন সার্ভিস প্রোভাইডার। দীর্ঘ ১ দশক ধরে তারা সুনামের সাথে তাদের প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করে আসছে। আমি, বুস্ট এডুকেশান সার্ভিস এর বিজনেস ডেভেলপমেন্ট ম্যানেজার।সম্প্রতি যে ঘটনাটি ঘটেছিলো সেটা আসলে এক ধরনের মিস আন্ডারস্টান্ডিং। তৎকালিন এইচ আর ও বুস্ট এডুকেশন সার্ভিস এর হায়ার অথরিটির সাথে একরকমের স্বমন্যয়হীনতার কারণে আমার কাছে এক ধরনের ভুল ম্যাসেজ আসে। যে কারনে উক্ত পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়।

Previous articleউল্লাপাড়ায় সাবেক ইউপি সদস্যসহ গ্রেফতার ৫, আদালতে চালান
Next articleখাগড়াছড়ি জেলা পরিষদের নতুন ভবনের পার্কিং শেড ধসে নিহত ২, আহত ৭
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।