সুজন মহিনুল: নীলফামারীতে জমি-জমা সংক্রান্ত বিষয়ে আপন চাচার বীরমুক্তিযোদ্ধা একে.এম আমিনুল হকের কাছে প্রতারণার শিকার ভাতিজা ফরহাদ নওরোজ নাহিন আইনী সহায়তা নিলে তাকে মামলা তুলে নেয়ার হুমকি দেয়ার ঘটনায় অব্যাহতির প্রার্থনা নামঞ্জুর করেছে আদালত।

এ ঘটনায় রাষ্ট্র বাদি হয়ে আমিনুল হকের বিরুদ্ধে ৫০৬(২)ধারায় অভিযোগ গঠন করে। মামলা নম্বর এন.জি.আর ৫১/২১ (এন)।অভিযুক্তরা হলেন-জেলা শহরের হাজী মহসিন সড়ক এলাকার বাসিন্দা আমিনুল হক (৭০) ও তার সহযোগী মোঃ শামীম হোসেন(৪০)।

জানা যায়,জমি-জমা সংক্রান্ত বিষয়ে আপন চাচার একে.এম আমিনুল হকের সাথে জমি নিয়ে কয়েকটি মামলা আদালতে চলমান রয়েছে।চাচা আমিনুল হক গত ২০ এপ্রিল দুপুরে হাজি মহসিন সড়কে নাহিনকে তার বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহার করার জন্য হুমকী দেন।নাহিন তার দাবীকৃত পৈতৃক জমি না পাওয়া পর্যন্ত মামলা প্রত্যাহার করবে না বলে জানালে চাচা আমিনুল হক ও তার সহযোগী শামিম হোসেন ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন। ঘটনার এক পর্যায়ে আমিনুল হক নাহিনকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে ও তার সহযোগী শামিম হোসেন ধারালো অস্ত্র দেখিয়ে নানা ধরনের হুমকি প্রদর্শন করেন। মামলা না উঠালে আমাকে জানে মেরে ফেলার হুমকি দেয়।এঘটনাকে কেন্দ্র করে ভুক্তভোগী নাহিন গত ১লা মে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। যার জিডি নম্বর-৫০, তারিখ-০১/০৫/২০২১ইং।

নীলফামারী জজ কোর্টের আইনজীবী গোলাম মোস্তফা সজীব বলেন, মামলা তুলে নেওয়ার বিষয়ে একে.এম আমিনুল হক তার নিজ ভাতিজা ফরহাদ নওরোজ নাহিনকে মেরে ফেলার হুমকি প্রদান করেন।এ নিয়ে নাহিন থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করলে থানা কর্তৃপক্ষকে ঘটনার সত্যতা পায় ও সেই তদন্ত প্রতিবেদন আদালতে প্রদান করে। সেই ঘটনায় একে.এম আমিনুল হক গত ১৯ অক্টোবর আদালতে উক্ত বিষয়ে অব্যাহতির আবেদন করলে আদালত তা নামঞ্জুর করে তার বিরুদ্ধে দন্ডবিধি ৫০৬(২)ধারায় অভিযোগ গঠনের নির্দেশ দেন।

Previous articleকলাপাড়ায় ভূমি অধিগ্রহনে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারগুলোর দাবি ‘নিজ ইউনিয়নে আবাসন চাই’
Next articleক্ষমতা গ্রহণের ৬ সপ্তাহের মাথায় পদত্যাগ করলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ট্রাস
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।