মঙ্গলবার, এপ্রিল ২৩, ২০২৪
Homeসারাবাংলাগরু চুরির সংবাদ প্রকাশে করায় ৬ সাংবাদিকের বিরুদ্ধে সাইবার ট্রাইবুনালে মানহানীর মামলা। 

গরু চুরির সংবাদ প্রকাশে করায় ৬ সাংবাদিকের বিরুদ্ধে সাইবার ট্রাইবুনালে মানহানীর মামলা। 

এএসটি সাকিলঃ- ভোলার বোরহানউদ্দিনে গরু চুরির সংবাদ করায় ৬ সাংবাদিকের বিরুদ্ধে সাইবার ট্রাইবুনালের মিথ্যা মামলা দায়ের করেছে গরু চুরির মামলার আসামি নেছার উদ্দিন।
মাওলানা কাসেমের ছেলে বোরহানউদ্দিন পৌরসভা ৪ নং ওয়ার্ডের আহাম্মদিয়া মাদ্রাসার প্রধান মো: নেছারউদ্দিন বাদী হয়ে বরিশাল সাইবার  ট্রাইবুনাল মামলা দায়ের করেন।
জানা যায়, গত ১৮ জুলাই (মঙ্গলবার) দিবাগত রাত ৩ টায় বোরহানউদ্দিন উপজেলা পক্ষিয়া ইউনিয়ন ৮ নং ওয়ার্ডের আব্দুস সোবহানের তিনটি ও আব্দুল বারেকের তিনটা মিলে মোট ৬ টি গরু চুরি হয়। গরুর পায়ের চিহ্ন ধরে বোরহানউদ্দিন পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডে আহম্মদিয়া মাদ্রাসায় পুলিশি অভিযান চালিয়ে চোরাই গরুসহ ১০ জনকে আটক করেন পুলিশ।
এসময় মাদ্রাসা থেকে ৬ টি গরু ১ টি মোটরসাইকেল, ১ টি পাম্প মেশিন উদ্ধার করেন পুলিশ। সেখান থেকে মাদ্রাসার ৪ শিক্ষার্থী এবং চোর চক্রের গডফাদার নেছার উদ্দিনের ৩ (তিন) স্ত্রীকে থানায় নিয়ে যায়। ওই ঘটনায় আসামিদেরকে ভোলার বিজ্ঞ জজ আদালতে সোপর্দ করা হয়। মাদ্রাসা শিক্ষার আড়ালে গরু চুরির ঘটনা দেশব্যাপী ব্যাপক আলোচিত হয়েছে। সংবাদকর্মীরা ঘটনা স্থলে গিয়ে তথ্য সংগ্রহ করে সংবাদ প্রকাশ করেন। এর আগেও নেছারুউদ্দিনের বিরুদ্ধে গরু চুরির অভিযোগে ভোলার আদালতে মামলা রয়েছে। গরু চুরির সংবাদ প্রকাশ করায় ক্ষিপ্ত হয়ে চোর চক্রের মূল হোতা নেছার উদ্দিন   বাদী হয়ে ভোলা জেলা অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি তুহিন খন্দকার সহ আরো ৫ জনের নাম উল্লেখ করে সাইবার ট্রাইবুনালে মিথ্যা মামলা দায়ের করেছেন।
সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মামলার বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর গরু চোরের বিরুদ্ধে  মিডিয়ায় ব্যাপক সমালোচনার ঝড় তোলেন সাংবাদিকরা।  সকলে গরু চোরের ক্ষমতার উৎস সম্পর্কে জানার আগ্রহ প্রকাশ করে। ৬ সাংবাদিকের বিরুদ্ধে  মামলার ঘটনাকে কেন্দ্র করে  ভোলা জেলার সকল সাংবাদিক সংগঠন ও সংবাদকর্মীদের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।
মামলার বিষয়ে অভিযুক্ত নেছার উদ্দিনের মুঠোফোন একাধিকবার কল করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ না করায় তার বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।
এ বিষয়ে ভোলা জেলা অনলাইন প্রেস ক্লাব সভাপতি তুমি খন্দকার জানা, আমরা আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে চোরাই গরুসহ ১০ জনকে আটক করে থানায় নেয়। চুরির ঘটনায় নেছার উদ্দিনসহ উল্লেখিতদের বিরুদ্ধে বোরহানউদ্দিন থানায় ময়মলা হয়। মামলার পর পুলিশ ও স্থানীয়দের বক্তব্য অনুযায়ী আমরা অনেকে সংবাদ প্রকাশ করেছি। একটি কুচক্রী মহলের ইন্দনে গরু চোর ও চুরি মামলার আসীম নেছার উদ্দিন আমাদের বিরুদ্ধে সাইবার ট্রাইব্যুনালে মামলা দেয়। সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে চোরের মামলা হওয়ায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।
আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerkagoj.com.bd/
Ajker Bangladesh Online Newspaper, We serve complete truth to our readers, Our hands are not obstructed, we can say & open our eyes. County news, Breaking news, National news, bangladeshi news, International news & reporting. 24 hours update.
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments