রবিবার, মে ১৯, ২০২৪
Homeসারাবাংলাপাবনায় শুরু হয়েছে উদ্যোক্তা মেলা: দর্শক-ক্রেতার উপচে পড়া ভীড়

পাবনায় শুরু হয়েছে উদ্যোক্তা মেলা: দর্শক-ক্রেতার উপচে পড়া ভীড়

কামাল সিদ্দিকী : পাবনায় শুরু হয়েছে উ্যদ্যোক্ত মেলা। বিসিকের উদ্যোগে শহরের প্রাণকেন্দ্র বীরমুক্তিযোদ্ধা রফিকুল ইসলাম বকুল স্বাধীনতা চত্ত্বরে এই মেলা শুরু হয়েছে। মেলা চলবে ২৮ জানুয়ারী পর্য়ন্ত। মেলা ইতিমধ্যে বেশ জমে উঠেছে।ক্ষুদ্র আয়ের এসব নারী উদ্যোক্তারা বেশ খুশি হচ্ছেন মেলার বেচাকেনায়।

মেলায় প্রতিদিন উদ্যোক্তাদের বেচাকেনার পাশিপাশি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগের আয়োজন করা করা হয়েছে আগত দর্শক-ক্রেতাদের জন্য। মেলায় সোনাদিয়া, অর্পণা ট্রেডার্স, পুতুলের রান্নাঘর, পুতুল বুটিকস এন্ড শপিং সেন্টার, পিংক কিচেন, রিয়াদ নার্সারি, পেখম, আলফাজ মৌ খামার, পাবনা বুটিক, বিশ্বাস কনজুমার এন্ড এগ্রো, মিলি ফ্যাশন হাউজ, বান্দরবান ফ্যাশন, জারা ফ্যাশান হাউজ, নূর টয়েস গ্যালারী, কুশি কারু, নূর পটলাক হাউজ, মেসার্স ফেমাস হ্যান্ডিক্রাফট, ছহী হস্ত শিল্প, মিশকাত হস্তশিল্প, তৃণা পেষ্ট্রি হাউজ, এস আর গার্মেন্টস, মেঘ বুটিকস, আর আর লেডিস ফ্যাশন, রান্না বাটি, মহন গার্মেন্টস, আঁখি বুটিক্স এন্ড ফ্যাশান, রোকসানা রান্নার মসলা, সুকন্যা ফ্যাশন হাউস, প্রেম মনি আচাঁর ঘর, শিল্পাঙ্গন, মিলি বুটিক্স এন্ড ফ্যাশান, আদর ফুড প্রোডাক্টস, নিত্য পণ্য, মৌসুমী’স কিচেন, নিত্য চাহিদা, শেফ কিচেন, হেঁশেল ঘর, পিওর ফুড পয়েন্ট, পড়শী বুটিক্স, ঝিনাদহ ঐতিহ্যবাহী পিঠার ঘর এন্ড ফাষ্ট ফুড, রুমার রসুই ঘর, ঘরেই বাজার, চকলেট গ্যালারি, ঢাকাইয়া ফুসকা বিলাস এন্ড হ্যান্ডমেড আইসক্রিম, মিম কিচেন এন্ড পেস্টি সপসহ ৪৯টি ষ্টলে হাতে তৈরী নারী-পুরুষের পোষাক, কেক, আচারসহ নানা সুস্বাদু খাবার, রয়েছে বাচ্চাদের খেলনা সামগ্রী থেকে শুরু করে ঘর সাজানোর নানা উপকরণের পসরা। মেলায় দর্শক-ক্রেতার আগমনে নারী উদ্যোক্তারা বেশ খুশি।

পুতুলের রান্নাঘর ও পুতুল বুটিকস এন্ড শপিং এর সত্ত্বাধিকারী উদ্যোক্তা সাজেদা খাতুন বলেন, মেলায় এবার অনেকলোকের আনাগোনা বেড়েছে। বিক্রিও ভাল হয়েছে। আমি আনন্দিত।সবচেয়ে বড় কথা পরিচিতি বাড়ছে আমার ও প্রতিষ্ঠানের।

সোনাদিয়া ষ্টলের স্ত্বাধিকারী বলেন, মেলায় লোকসমাগম বেশি, কেনাবেচাও হচ্ছে। তবে আমারমত ক্ষুদ্র উদ্যোক্তার আনন্দ নিরানন্দে পরিনত হয়েছে, পরশু আমার পার্স চুরি হয়েছে, যার মধ্যে সারদিনের বেচাকেনা আট হাজার টাকা ছিলো। আমি মেলাতে ষ্টল দিয়েছি মানুষের কাছ থেকে টাকা ধার করে। আমারমত ক্ষুদ্র উদ্যোক্তার জন্য এটা বিশাল ক্ষতি। কেনাবেচায় যে পরিমান খুশি হয়েছিলাম, তার চেয়ে কষ্টটা বেশি হবে দেনা শোধ করতে।

মেঘ বুটিকস এর সত্ত্বাধিকার উম্মাতুল ফেরদৌস বলেন, খুব ভালই কেনাবেচা হচ্ছে।মেলাতে ষ্টল দিতে পেরে আমি খুশি।

বিসিকের ডিজিএম মো: রফিকুল ইসলাম বলেন, অন্যান্যবারের তুলনায় এবারের মেলা অসম্ভব জমে উঠেছে। মেলা জমে উঠার কারনে নারী উদ্যোক্তারা সুফলভোগী হচ্ছেন। তিনি জানান, মেলায় সেল না থাকলে উদ্যোক্ত সুফলভোগী হতে পারে না, সেই দিক দিয়ে মেলায় দর্শক সমাগম থাকায় সেল বেড়েছে, লাভবাণ হচ্ছেন উদ্যোক্তারা। মেলায় ষ্টল থেকে চুরির বিষয়ে তিনি বলেন, আমি তাদের সর্তক করছি, আজও করবো। উদ্যোক্তাদের তিনি ভীড়ের সময় সতর্ক দৃষ্টি রাখার আহবান জানান।

 

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerkagoj.com.bd/
Ajker Bangladesh Online Newspaper, We serve complete truth to our readers, Our hands are not obstructed, we can say & open our eyes. County news, Breaking news, National news, bangladeshi news, International news & reporting. 24 hours update.
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments