কাগজ ডেস্ক: আফগানিস্তানে নিরাপত্তা বাহিনীর তল্লাশি চৌকি ও সরকার সমর্থিত মিলিশিয়াদের ওপর তালেবান হামলায় অন্তত ৩২ জন নিহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার এ হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে দেশটির প্রাদেশিক কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

শান্তি আলোচনা নিয়ে কথা উঠলেও আফগানিস্তানের ১৭ বছর ধরে চলা যুদ্ধে দুপক্ষই চলতি শীতেও হামলা অব্যাহত রেখেছে।

তালেবান হামলায় আফগান সরকারের বিভিন্ন বাহিনীকে যেমন খেসারত দিতে হচ্ছে। আবার সরকারি বাহিনী বিমান হামলা চালিয়ে তালেবান ফিল্ড কমান্ডারকে হত্যা করেছে।

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের বিশেষ দূত জালমি খালিলজাদ আফগান তালেবানের সঙ্গে তিন দফা শান্তি আলোচনা করেছেন। যদিও চতুর্থ দফা বৈঠক বাতিল ঘোষণা করেছে তালেবান।

উত্তরাঞ্চলীয় প্রদেশ কুন্দুজ, বাগলান, তাকহার ও পশ্চিমের বাদগিসে এসব হামলা চালিয়েছে তালেবান।

কুন্দুজের কালা-ই-জাল জেলার প্রধান আহমাদ ফাহিম কারলাখ বলেন, নিরাপত্তা বাহিনীর চৌকিতে তালেবানের ব্যাপক হামলায় অন্তত ১০ সেনা ও পুলিশ নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও ১১।

এ সময় ২৫ তালেবান যোদ্ধা নিহত হওয়ার দাবি করেন তিনি। কর্মকর্তারা বলেন, বাগলান ও তাকহার প্রদেশে সরকারপন্থী মিলিশিয়া গ্রুপের ১৬ সদস্যকে হত্যা করেছে তালেবান।

বাগদিসের গভর্নরের মুখপাত্র জামশিদ শাহাবি বলেন, তাদের নিরাপত্তা বাহিনীর ৬ সদস্য নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ১০ জন।

এসব হামলার দায় স্বীকার করেছেন তালেবান মুখপাত্র জাবিহুল্লাহ মুজাহিদ। তিনি বলেন, তারা সরকারি বাহিনীর কয়েক ডজন সদস্যকে হত্যা, বিপুল অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার করেছেন।

Previous article১১ বছর পর একই পর্দায় অমিতাভ-ঐশ্বরিয়া
Next articleস্ত্রীর আত্মহত্যার ৫ দিন পর স্বামীর আত্মহত্যা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।