কাগজ ডেস্ক: ভারত-পাকিস্তান উত্তেজনার মধ্যে নিয়ন্ত্রণরেখা অতিক্রম করে হামলা চালানোর ঘটনায় ভারতীয় একটি যুদ্ধবিমান নিখোঁজ ও তার পাইলটকে পাওয়া যাচ্ছে না। বুধবার বেলা সাড়ে ৩টার দিকে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম এনডিটিভিতে এক বক্তব্যে একথা জানানদেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রাভিশ কুমার।

দুটি ভারতীয় বিমান ভূপাতিত করা নিয়ে পাকিস্তানের পক্ষ থেকে যে দাবি করা হয়েছে নিখোঁজ হওয়া ভারতীয় বিমানটি তার মধ্যে রয়েছে কিনা তা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে মনে করা হচ্ছে এটি পাকিস্তানই ভূপাতিত করেছে; পাইলটকেও জিম্মি করেছে তারা।

ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র জানান, ভারত ‘দু:খজনকভাবে’ একটি মিগ-২১ বিমান হারিয়েছে এবং ওই বিমানের পাইলট নিখোঁজ রয়েছেন।

তিনি আরও জানান, ভারত অবস্থা যাচাই করছে এবং পাকিস্তান যে পাইলটকে আটক করে রাখার দাবি করেছে তা নিশ্চিত করেছে।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ভারতনিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরের পুলওয়ামায় দেশটির আধা সামরিক বাহিনীর গাড়িবহরে আত্মঘাতী হামলায় অন্তত ৪০ জন জওয়ান নিহত হন।

পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মুহাম্মদ এই হামলার দায় স্বীকার করে। তবে পাকিস্তান সরকার তা অস্বীকার করে আসছে।

এরই মধ্যে পুলওয়ামা হামলার জবাব দিতে মঙ্গলবার ভোররাতে পাকিস্তানের ভেতরে অভিযান চালায় ভারত। সেখানে তাদের অভিযানে ৩০০ জঙ্গি নিহত হয় বলে দাবি ভারতের। তবে পাকিস্তান তা প্রত্যাখ্যান করেছে।

পাকিস্তান সেনাবাহিনীর মুখপাত্র মেজর জেনারেল আসিফ গফুর বুধবার দাবি করেছেন, ভারতের দুটি বিমান গুলি করে ভূপাতিত করেছে তাদের বাহিনী। এর মধ্যে একটি ফাইটার পড়েছে পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে। অন্যটি ভারতীয় অংশে।

পাকিস্তানের তথ্য মস্ত্রণালয় একটি ভিডিও প্রকাশ করা হয়েছে। যেখানে চোখ বাঁধা অবস্থায় রক্তাক্ত এক বৈমানিককে দেখা যাচ্ছে। এসময় বলা হচ্ছে তিনি ভারতীয় বিমান বাহিনীর উইয় কমান্ডার আভি নন্দন।

এদিকে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রাভিশ কুমার ভারতীয় বািমিান বাহিনীর বরাত দিয়ে নিশ্চিত করেছেন যে পাকিস্তানের একটি বিমানও ভূপাতিত করেছে ভারতের বিমান বাহিনী। বিধ্বস্ত হওয়ার পর বিমানটি পাকিস্তানের সীমানার ভেতরে পড়েছে বলে জানান তিনি।