বাংলাদেশ ডেস্ক: আদিবাসী আবাসিক স্কুলগুলোতে নিজের ভূমিকার দায় নিতে ক্যাথলিক গির্জাকে আহ্বান জানিয়েছেন কানাডীয় প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। গত মাসে একটি স্কুলের পাশে দাফন করা ২১৫টি শিশুর দেহাবশেষ উদ্ধার করা হয়েছে।-খবর বিবিসির

এ নিয়ে কানাডায় ব্যাপক ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। ট্রুডো বলেন, স্কুলগুলোর নথি প্রকাশে যে অনুরোধ করা হয়েছিল, তাতে গির্জাগুলোর ব্যাপক অনীহা দেখা গেছে।

সরকার-পরিচালিত বোর্ডিং স্কুলগুলোতে জবরদস্তিমূলক আদিবাসী শিশুদের আত্তীকরণ করা হয়েছিল। যা সরকারি নীতির অংশ ছিল। মূলত আদিবাসীদের সংস্কৃতি ও ভাষা ধ্বংস করে দিতে এমন পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছিল।

মে-তে যেসব শিশুদের মরদেহ পাওয়া গিয়েছিল, তারা ব্রিটিশ কলোম্বিয়ার কামলুপস ইন্ডিয়ান আবাসিক স্কুলের শিক্ষার্থী ছিলেন। ১৯৭৮ সালে স্কুলটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল।

আবাসিক স্কুলশিক্ষার্থীদের মৃত্যু নিয়ে কানাডার পশ্চিমাঞ্চলে টিকেমলুপস টি সেকওয়েপেমক ফাস্ট ন্যাশনের চলমান তদন্তে এই গণকবর উদ্ধার করা হয়েছে। এর মধ্যে বেশ কয়েকটি শিশুর বয়স তিন বছর হবে।

সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে ট্রুডো বলেন, অতীতে ক্যাথলিক গির্জা যে পদক্ষেপ নিয়েছিল, তাতে একজন ক্যাথলিক হিসেবে আমি খুবই অসন্তুষ্ট।

২০১৭ সালে মে মাসে ভ্যাটিক্যান সফরে যান তিনি এবং শিশুদের নির্যাতন নিয়ে পোপ ফ্রান্সিসকে সরসারি ক্ষমা চাইতে বলেছেন।

রোগ ও অপুষ্টিতে চার হাজার ১০০টিরও বেশি মৃত্যুর ব্যাখ্যা জানতে গির্জার নথি দেখতে চেয়েছেন ট্রুডো। তিনি বলেন, গির্জাগুলো এখনো চরম অনীহা প্রদর্শন করছে।

Previous articleমোংলায় একদিনে ৪৮ পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত ৩৪
Next articleটিকটক-লাইকি নিষিদ্ধ চায় র‌্যাব
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।