মন্ত্রী ও এমপিদের বাইরে রেখে দুর্নীতির শিকড় উপড়ানো যাবে না: খালেকুজ্জামান

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল- বাসদ সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান বলেছেন- মন্ত্রী, এমপি, বড় আমলা, বড় পুলিশ কর্মকর্তা ও বড় রাজনৈতিক নেতাদেরকে দৃশ্যপটের বাইরে রেখে দুর্নীতির ডাল পালা ছাঁটা হতে পারে, কিন্তু শিকড় উপড়ানো যাবে না। সোমবার দুপুরে রাজধানীর তোপখানা রোডের দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে তিনি এ কথা বলেন।

বাসদ সাধারণ সম্পাদক- বালিশ, পর্দা, ফোর পার্সেন্ট, সিক্স পার্সেন্ট, শেয়ার ও শেয়ারের পর এসেছে ক্যাসিনো। এগুলো একেকটা দুর্নীতির লৌমহর্ষক ও বিবেকের পীড়াদায়ক ঘটনা হলেও এগুলো দিয়ে দুর্নীতির পুরো চিত্র কিংবা তার উৎসমূল ও শক্তি কেন্দ্র খুঁজে পাওয়া যাবে না। অতীতের বহু অভিযান তার স্বাক্ষর দেয়। বিজলীর আলো মুহূর্তে চারদিক আলোকিত করলেও সেই আলো স্থায়ী হয় না।

তিনি বলেন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযান বিজলী চমকানোর মতো না হয়ে দিবালোকের মতো দিন দেখতে চায় জনগণ। শুধু ক্লাবে, স্পাতে খুঁজাখুঁজি সীমাবদ্ধ না রেখে ব্যাংক, পুঁজিবাজার ও ম্যাসেজ পার্লার, বিদেশে দ্বিতীয় বাড়ি, বেগম পাড়া, সুইস ব্যাংকে টাকার মালিকদের খুঁজে পাওয়া জরুরি।

তিনি আরও বলেন, ক্ষমতাসীন ও ক্ষমতাধর ব্যক্তিদের ব্যক্তিগত ও পারিবারিক, দেশে বিদেশে সহায় সম্পত্তির হিসাব তল্লাশী করাও সময়ের দাবি। কারণ এদের পৃষ্ঠপোষকতা ছাড়া জিকে শামীম, খালেদ, সম্রাট ও ফিরোজরা গজিয়ে উঠতে এবং এতটা সাম্রাজ্য বিস্তার করতে না। এদের ব্যবস্থার অমূল পরিবর্তনের লক্ষে বিপ্লবাত্মক রূপান্তরের পথে যাওয়া ছাড়া উপায় নেই।