কামাল সিদ্দিকী: আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ এমপি বলেছেন, হেফাজতে ইসলামের কাঁধে ভর করে বিএনপি-জামাত দেশকে অস্থিতিশীল করার ষড়যন্ত্র করছে। মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস ধ্বংস করতে যত ধরনের তৎপরতা ছিল তা সব করেছে জামাত বিএনপিসহ মুক্তিযুদ্ধ বিরোধী শক্তি। তারা হাটহাজারী ও ব্রাক্ষমবাড়িয়ায় নাশকতা করে স্বাধীনতা দিবসকে কলঙ্কিত করেছে মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, অধিকার আদায়ের জন্য বঙ্গবন্ধু ছাত্রদের নিয়ে গঠন করছিলেন ছাত্রলীগ। আন্দোলনের মুল শক্তি ছাত্র। আর এই ছাত্র সংগঠন দেশের বিভিন্ন আন্দোলনে অগ্রণী ভুমিকা পালন করেছে। এসবের মূলে ছিলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। তিনি বলেন, বিএনপি জামাত বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষন প্রচার করতে দেয়া হয়নি। অথচ আজ এই ভাষন ইউনেস্কো বিশ্বের শ্রেষ্ঠ ভাষন হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে সংরক্ষণ করেছে।

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর ৫০ বছর পূর্তি অনুষ্ঠানে বিশ্বের সকল দেশ অভিনন্দন জানিয়েছেন। দেশ যখন বিশ্বের রোল মডেল হয়েছে। তখন হেফাজতের নামে খুনী তারেক জিয়া লন্ডনে বসে টুপিওয়ালা সন্ত্রাসীদের নামিয়ে দিয়ে নাশকতা করেছে। যুগ্ম সম্পাদক হানিফ বলেন, লন্ডনে বসে মাফিয়া, কুখ্যাত খুনী, পলাতক আসামী তারেক জিয়া একের পর এক দেশ বিরোধী নাশকতা চালিয়ে যাচ্ছে। বাবা জিয়া ছিল দেশ বিরোধী, মা খালেদা ছিল জামাতের নেত্রী আর ছেলে হয়েছে দেশদ্রোহী। বিএনপি জামাত ও হেফাজতের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ইসলাম সন্ত্রাসের ধর্ম নয়। অথচ আপনারা ধর্ম ব্যবহার করে নিজেদের সুবিধা হাসিলে অপভাবে ব্যবহার করে একের পর এক অপধর্মের কাজ করে দেশ বিরোধী কাজে লিপ্ত হচ্ছেন। তিনি আরও বলেন, গরীব, এতিম ও অসহায় মাদরাসার ছাত্রদের ব্যবহার করে নিজেদের ফায়দা লুটছেন স্বাধীনতা বিরোধীরা। অথচ ওই অসহায় মাদরাসা ছাত্ররা কি খায় না খায় একবার খেয়াল করছেন না। তিনি আরও বলেন, ৫ মে হেফাজতের করুন পরিণতি মনে করে সামনে নতুন কিছু করে সরকারকে বেকায়দায় ফেলার চেষ্টা করে লাভ হবে না। রাষ্ট্রের শক্তি প্রয়োগ করলে বাঁচতে পারবেন না। সব সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে লিপ্ত না হয়ে সরকারের উন্নয়নে সহায়তা করুন। নইলে পার পাওয়ার সুযোগ পাবেন না। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ স্মারক ম্যুরাল ‘জনক জ্যোতির্ময়’ এর শুভ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মাহবুব উল আলম হানিফ উপরোক্ত কথা বলেন। পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্যোগে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসের মুক্তিযুদ্ধের ভাস্কর্য পাদদেশে দুপুর ১২ টায় বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম রোস্তম আলীর সভাপতিত্বে ও ইতিহাস ও বাংলাদেশ স্টাডিজ বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ হাবিবুল্লাহ’র সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি অ্যাডভোকেট শামসুল হক টুকু এমপি, পাবনা-২ আসনের সংসদ সদস্য, জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমেদ ফিরোজ কবির, কুষ্টিয়া-৪ আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার সেলিম আলতাফ জর্জ, পাবনা-৫ আসনের সংসদ সদস্য, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম ফারুক প্রিন্স, পাবনা-৪ আসনের সংসদ সদস্য বীরমুক্তিযোদ্ধা নুরুজ্জামান বিশ্বাস, কুষ্টিয়া -১ আসনের সংসদ সদস্য আ ক ম সরওয়ার জাহান, পাবনা-সিরাজগঞ্জ সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য নাদিরা ইয়াসমিন জলি পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ট্রেজারার অধ্যাপক ড. আনেয়ার খসরু পারভেজ। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন পাবিপ্রবির রেজিস্ট্রার (চলতি দায়িত্ব) বিজন কুমার ব্রক্ষ্ম। অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথি ছিলেন পাবনা জেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রেজাউল রহিম লাল, পাবনা সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন, পাবনা পৌরসভার মেয়র শরীফ উদ্দিন প্রধান, পাবিপ্রবি শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মাহমুদ চৌধুরী আসিফ প্রমুখ। অনুষ্ঠানে পাবিপ্রবির বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক, কর্মকর্তা এবং আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীসহ নানা শ্রেণি-পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানের শুরুতে প্রধান অতিথিসহ অন্যান্য অতিথিবৃন্দ ‘জনক জ্যোতিময়’ বঙ্গবন্ধুর স্মারক ম্যুরালের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়।

Previous articleকরোনায় আরও ৪৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৫ হাজার ৪২
Next articleখালেদা জিয়ার চিকিৎসক জাহিদ সস্ত্রীক করোনা আক্রান্ত
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।