হাসানুজ্জামান তুহিন: শাহজাদপুরে গৃহবধু আম্বিয়া খাতুনকে হত্যার দায়ে তার স্বামী মহির উদ্দিন (৪৬) কে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন সিরাজগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল। গত সোমবার ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক ফজলে খোদা নাজির এ রায় দেন। একই সাথে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামী মহির উদ্দিনকে ১০ হাজার টাকা জরিমানার আদেশ দেয়া হয়েছে। নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের এপিপি আনোয়ার পারভেজ লিমন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। মৃত্যুদ-াদেশ প্রাপ্ত মহির উদ্দিন শাহজাদপুর পৌর এলাকার কান্দাপাড়া মহল্লার মৃত আবু আক্কাছের ছেলে।
জানা গেছে, ১৯৯৭ সালে শাহজাদপুর পৌর এলাকার প্রাণনাথপুর মহল্লার আবুল হোসেনের মেয়ে আম্বিয়া খাতুন ওরফে দুলি’র সাথে কান্দাপাড়া গ্রামের মহির উদ্দিনের বিয়ে হয়। বিয়ের কিছুদিন পর থেকেই মহির উদ্দিন যৌতুকের দাবিতে স্ত্রী আম্বিয়া খাতুনকে নানা ভাবে নির্যাতন করতো। এক পর্যায়ে মহির উদ্দিন তার নিজ বাড়িঘর বিক্রি করে প্রাণনাথপুর গ্রামে শ্বশুর বাড়িতে বসবাস শুরু করে। শ্বশুর বাড়িতে বসবাস করা অবস্থায়   ২০১২ সালের ২৪ অক্টোবর যৌতুকের টাকা নিয়ে স্বামী-স্ত্রী’র মধ্যে প্রচন্ড বাকবিতন্ডার ঘটনা ঘটে। এক পর্যায়ে একই দিন রাতে মহির উদ্দিন তার স্ত্রী আম্বিয়া খাতুনকে শ্বাসরোধ ও কুপিয়ে হত্যা করে। এমনকি আম্বিয়া খাতুনের গংরানীর আওয়াজ পেয়ে তার মা রোকেয়া বেগম ঘটনাস্থলে ছুটে এলে মহির উদ্দিন তাকেও ধারালো অস্ত্র দিয়ে গুরুতর জখম করে। এ সময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা মহির উদ্দিনকে পাকড়াও করে থানা পুলিশে সর্পদ করে। এ ঘটনায় নিহত আম্বিয়ার ভাই সিরাজুল ইসলাম বাদী হয়ে থানা হত্যা মামলা দায়ের করে। তদন্ত শেষে পুলিশ মহির উদ্দিনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশীট দেয়। অবশেষে দীর্ঘ শুনানির পর গত সোমবার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল মহির উদ্দিনকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দেন।