হাসানুজ্জামান তুহিন: আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সিরাজগঞ্জ-৬ (শাহজাদপুর) আসনে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী বর্তমান এমপি হাসিবুর রহমান স্বপনের পক্ষে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে নৌকার বিজয়কে সুনিশ্চিত করার লক্ষ্যে গত সোমবার শাহজাদপুরে উপজেলা আওয়ামীলীগের এক যৌথ কর্মীসভা অনুষ্ঠিত হয়। সকাল ১১ টায় স্থানীয় রবীন্দ্র কাচারিবাড়ি অডিটোরিয়ামে আয়োজিত এ কর্মীসভায় সভাপতিত্ব করেন আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি ও বর্তমান এমপি হাসিবুর রহমান স্বপন। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিরাজগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি কে, এম, হোসেন আলী হাসান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক এমপি ও যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য চয়ন ইসলাম, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি বেল্লাল হোসেন, জেলা আওয়ামীলীগ নেতা ও মিল্কভিটার ভ্ইাস চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট শেখ আব্দুল হামিদ লাবলু ও যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. সাজ্জাদ হায়দার লিটন। অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর আজাদ রহমান, এ্যাডভোকেট মুহ. আব্দুল হাই, রফিকুল ইসলাম বাবলা, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মুস্তাক আহমেদ, শামছুল আলম, পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আমিরুল ইসলাম শাহু, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ফারুক সরকার, ইউপি চেয়ারম্যান হাসিবুল হাসান, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ নেতা মাজেদ আলী, আবুল হোসেন, যুবলীগ সভাপতি ইউনুস আলী, ছাত্রলীগ সভাপতি মারুফ হাসান সুনাম প্রমুখ। এছাড়াও কর্মীসভা ১৪ দলের অন্তর্ভূক্ত বাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির নেতা রেজাউল রশিদ খাজা ও এ্যাডভোকেট কে, এম, মতিয়ার রহমান বক্তব্য রাখেন। বক্তারা সকল ভেদাভেদ ভূলে ঐক্যবদ্ধভাবে দলীয় মনোনীত প্রার্থী আলহাজ্ব হাসিবুর রহমান স্বপনের পক্ষে কাজ করে নৌকার বিজয়কে সুনিশ্চিত করার আহবান জানান। কর্মীসভায় উপজেলা আওয়ামীলীগ, পৌর আওয়ামীলীগ, মহিলা আওয়ামীলীগ সহ ১৩ টি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ ও এর সহযোগি সংগঠনের প্রায় ২ হাজার নেতাকর্মী ও সমর্থকরা উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য, কর্মীসভায় দলীয় মনোনয়ন প্রাপ্ত হাসিবুর রহমান স্বপন এমপি এবং মনোনয়ন প্রত্যাশী অপর ৩ নেতা সাবেক এমপি চয়ন ইসলাম, এ্যাডভোকেট শেখ আব্দুল হামিদ লাবলু ও ড. সাজ্জাদ হায়দার লিটন একই মঞ্চে উপস্থিত থেকে নৌকার প্রার্থীকে বিপুল ভোটে বিজয়ী করার আহবান জানালে নেতাকর্মীরা বাদভাঙ্গা উল্লাসে ফেটে পড়ে। এ সময় অনুষ্ঠান স্থল ‘জয় বাংলা’ ও ‘নৌকা নৌকা’ শ্লোগানে মুখরিত হয়ে উঠে।