মারুফা মির্জা: বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সহ প্রচার সম্পাদক ও সিরাজগঞ্জ-৫ আসনে বিএনপির মনোনীত প্রার্থী আমিরুল ইসলাম খান আলীম বলেছেন, গত ১০ বছর ধরে বাংলার মানুষ নানা অত্যাচার-নির্যাতন সহ্য করে দিন কাটাচ্ছে। শহীদ জিয়ার প্রতিষ্ঠিত বিএনপিকে তছনছ করতে এমন কোন পথ নেই যে অবলম্বন করা হয়নি। বেগম খালেদা জিয়াকে জেলখানায় এবং তারেক জিয়াকে দেশান্তরী করে রাখা হয়েছে। আমরা প্রতিশোধ চাইনা নায্য অধিকার চাই। তাই এখন অধিকার ফিরিয়ে আনার আন্দোলন করছে বিএনপি। আর তা হলো নির্বাচন। এ আন্দোলনে আমরা জয় লাভ করবোই। দেশবাসী আমাদের সাথে আছে। তবে নির্বাচন কমিশনের কাছে আমাদের দাবী একটাই তা হলো অবাধ ও সুষ্ঠ নির্বাচন। আর এ নির্বাচনে অতীতের মত কোন রকম চক্রান্ত ও ভোট কেন্দ্র দখলের পায়তারা করলে জনগন তা মেনে নেবেনা। দেশবাসীর কাছে আমাদের একটাই দাবী, ৩০ ডিসেম্বর সকালে ফজরের নামাজ পড়ে কেন্দ্র সকালে ভোট দিয়ে কেন্দ্রে অবস্থান নিন। ভোট গননা পর্যন্ত ভোট কেন্দ্র পাহাড়া দিন। বিএনপি সকল জুলুম অত্যাচার সরিয়ে আপনাদের ৫ বছর শান্তিতে বসবাসে পাহাড়া দেবে। তিনি সোমবার সন্ধ্যায় সিরাজগঞ্জের বেলকুচি উপজেলার কান্দাপাড়ায় চর নবিপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে নির্বাচনী পথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
এসময় বিএনপি নেতা গোলাম আজম, মনোনয়ার চৌধুরী বাবু, সহ বিভিন্ন স্তরের নেতারা বক্তব্য রাখেন।
এর আগে বিপুল সংখ্যক নেতা কর্মীদের উদ্যোগে আসা মিছিলে-মিছিলে পুরো মাঠ কানায় কানায় পুর্ন হয়ে যায়। দীর্ঘ দিন পর সৃষ্টি হয় বিএনপির নেতা, কর্মী ও সমর্থকদের জোয়ার।