হাসিবুর রহমান স্বপন

হাসানুজ্জামান তুহিন: একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সিরাজগঞ্জ-৬ (শাহজাদপুর) আসনে শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহণের মধ্যে দিয়ে তৃতীয় বারের মতোন এমপি হলেন হাসিবুর রহমান স্বপন। ১৯৭০ উত্তাল ছাত্র গণআন্দোলনে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কনিষ্ঠ সংগঠক হিসেবে যাত্রা শুরু রাজনীতিতে। ১৯৭১ সনে মুক্তিযুদ্ধে সক্রিয় অংশ গ্রহন করেন হাসিবুর রহমান স্বপন। রাজনৈতিক ভাবে বিভিন্ন সময়ে নিজেকে তৈরি করেছেন শাহজাদপুরের সাধারণ মানুষের অকৃত্রিম বন্ধু হিসেবে। ইউনিয়ন পরিষদ, পৌরসভা ও উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন নিজ কারিশমায়। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিপুল ভোটে রাজশাহী বিভাগে প্রাপ্ত ভোটে ১ম স্থান অধিকার করে তৃতীয়বারের মতো জয়ী হয়ে প্রমান করেছেন তিনি একজন জনপ্রিয় মাটি ও মানুষের নেতা। ১৯৯৬ সনের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এম.পি হিসেবে প্রথমবার বিজয়ী হন তিনি শাহজাদপুরের এই আসন থেকে। তৃণমূল থেকে উঠে আসা এই কর্মী নিজের জন্য আসন করে নেন ১৯৯৬ সালে গঠিত জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকারের মন্ত্রী পরিষদের শিল্প উপ-মন্ত্রী হিসেবে। এরপর দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আবারও এ আসন থেকে নৌকা মার্কায় মনোনীত হয়ে নির্বাচিত হন। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলীয় অভ্যান্তরিন সকল কোন্দলকে পাশ কাটিয়ে সকল জল্পনা কল্পনার অবসান ঘটিয়ে তৃণমূলের নেতাকর্মীদের অফুরন্ত ভালবাসায় নিজেকে কেন্দ্রের কাছে প্রমান করতে সক্ষম হন তিনি এ আসনের যোগ্য প্রার্থী। আবারও বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব হাসিবুর রহমান স্বপন মনোনয়ন পান একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে। মনোনয়ন পেয়ে ভোট যুদ্ধে নৌকার প্রার্থী হিসেবে ৩ লাখ ৩৫ হাজার ৭৬৯ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়ে শপথ গ্রহন করলেন এমপি হিসেবে। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি চারদলীয় ঐক্যজোটের জাতীয় পার্টির (মতিন) এর চেয়ারম্যান সাবেক মন্ত্রী ডাঃ এম,এ মতিন এর পূত্র বিএনপি মনোনীত ধানের শীষ প্রার্থী ড. এম, এ, মুহিত পেয়েছেন ১৪ হাজার ৬৯৭ ভোট। ব্যাপক ব্যবধানে ধানের শীষের প্রার্থীকে পরাজিত করায় স্থানীয় ভাবে বিএনপির রাজনৈতিক অস্তিত্ত্ব সংকটের মুখে।