অপহৃত শিশু দীপা রানী (পুটি)

বরিশাল প্রতিনিধি: বরিশালে তিন বছর বয়সী এক শিশু কন্যাকে অপহরণের পর ৪০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। রবিবার সকাল ১০টার দিকে শিশুটি নিজ বাসার সামনে থেকে নিখোঁজ হন। একই দিন দুপুরে ও সন্ধ্যায় শিশুটির বাবাকে ফোন করে ৪০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে অপহরণকারীরা।

মুক্তিপণের টাকা না পেলে শিশুটিকে হত্যার হুমকি দেয় তারা। শিশুটিকে উদ্ধারের জন্য পুলিশের একাধিক টিম মাঠে তৎপরতা চালাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন মেট্রোপলিটন পুলিশের মূখপাত্র সহকারী কমিশনার নাসির উদ্দিন মল্লিক।

অপহৃত শিশুটির নাম দিপা রাণী পুটি (৩)। তার বাবা বিনয় সমাদ্দার নগরের কাউনিয়া বাশেরহাট এলাকায় একটি মিস্টির দোকানের কর্মচারী। তিনি ২০ নম্বর ওয়ার্ডের কলেজ এভিনিউ বাদল কমিশনারের বাড়ির গলিতে পরিবার নিয়ে ভাড়া বাসায় থাকেন।
শিশুটির বাবা বিনয় সমাদ্দার জানান, গত রবিবার সকাল ১০টার দিকে দীপা রানী ঘরের সামনেই খেলা করছিল। এর কিছুক্ষণ পর থেকেই তাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিলো না। তার খোঁজে প্রতিবেশীসহ নিকট আত্মীয়-স্বজনদের কাছে খোঁজ খবর ও এলাকায় মাইকিং করা হয়। পরে পুলিশকে অবহিত করা হয়।

বিনয় সমাদ্দার আরও বলেন, রবিবার দুপুরের দিকে একটি অপরিচিত নম্বর থেকে তার মোবাইলে কল করে অপরপ্রান্ত থেকে ৪০ হাজার টাকা মুক্তিপণ দাবি করা হয়। সন্ধ্যায় ফের ফোন করে মুক্তিপণ দাবি করা হয় ৪০ লাখ টাকা। তবে দুই বারই ফোন করা ব্যক্তি নিজের পরিচয় দেয়নি কিংবা কোথায় টাকা পাঠাতে হবে তাও জানায়নি।

মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার (দক্ষিন) মোয়াজ্জেম হোসেন ভূঁইঞা জানান, বিনয় সামাদ্দার তার মেয়েকে অপহরণ ও মুক্তিপণ দাবির অভিযোগ জানানোর পর পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

কোতয়ালী মডেল থানা, গোয়েন্দা (ডিবি) ও সিআইডি পুলিশের একাধিক টিম শিশুটিকে উদ্ধারের চেষ্টা চালাচ্ছে বলে তিনি জানান।