কাগজ প্রতিনিধি: উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে ভোট শুরুর দেড় ঘণ্টার মাথায় চন্দনাইশে ভোটকেন্দ্র দখল নিয়ে দুই প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। এ সময় গুলিবিদ্ধ হয়েছেন ফরহাদ হোসেন (৩০) নামে এক পুলিশ সদস্য। তাকে চট্টগ্রাম মেডিকের কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হচ্ছে।
রোববার (২৪ মার্চ) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে চন্দনাইশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে বলে আজকের কাগজকে নিশ্চিত করেছেন চন্দনাইশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কেশব চক্রবর্তী।
তিনি জানান, পূর্ব চন্দনাইশের চন্দনাইশ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র দখলে নিতে দুপক্ষের গোলাগুলিতে এক পুলিশ সদস্য গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। এ ছাড়া আহত হয়েছেন আরও অন্তত পাঁচজন।
তবে কোন দুই পক্ষ সংঘর্ষে লিপ্ত হয়েছেন তা তিনি নিশ্চিত করতে পারেননি।

এদিকে চমেক পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই আলাউদ্দিন তালুকদার জানান, গুলিবিদ্ধ পুলিশ সদস্যকে বহনকারী অ্যাম্বুলেন্সটি পটিয়া এলাকা অতিক্রম করছে। তার চিকিৎসার জন্য ইতোমধ্যেই চমেকের জরুরি বিভাগে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।
এর আগে গতকাল রাতে নির্বাচনের আগ মুহূর্তে উপজেলার খান হাট এলাকায় একটি নির্বাচনী গোপন বৈঠকে হানা দিয়ে বিপুল পরিমাণ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।
চন্দনাইশে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন পেয়েছেন এ কে এম নাজিম উদ্দীন। তার সঙ্গে দোয়াত-কলম প্রতীক নিয়ে লড়ছেন এলডিপি ছেড়ে আওয়ামী লীগে যোগ দেয়া বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান আবদুল জব্বার চৌধুরী।