জয়নাল আবেদীন: রংপুরে ভয়াবহ শিলাবৃষ্টি ও ঝড়ে বসত-বাড়িসহ বিভিন্ন ফসলী জমির ব্যাপক ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে। মঙ্গলবার ভোররাতে প্রায় ৪০ মিনিট ধরে এ শিলা বৃষ্টি এবং ঝড় হয়।ঝড়ে রংপুর সদর ,কাউনিয়া বদরগঞ্জ সহ বিভিন্ন এলাকায় শতশত বসত-বাড়িসহ জমির ফসলের ব্যাপক ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে। রংপুর নগরীর প্রধান সড়কের জিলা স্কুল মোড়ে কালবৈশাখী ঝড়ে শতবর্ষী কৃষ্ণচুড়া গাছ ভেঙ্গে পড়েছে। এতে করে ওই সড়কে চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এতে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হলে ভোগান্তিতে পড়ে পথচারীরা।মঙ্গলবার ভোর থেকে রংপুর সিটি কর্পোরেশনের বর্জ্য ব্যস্থাপনা বিভাগ ও ফায়ার সার্ভিস যৌথভাবে গাছ সড়ানোর কাজ করে দুপুরের পর সেই কাজ সম্পন্ন করে নগরবাসীর চলাচল যোগ্য করে তোলে ।এদিকে শিলা বৃষ্টি ও ঝড়ে কি পরিমান ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে তা এখনো জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানা যায়নি।এ সময় ওই এলাকার বিভিন্ন ফসলী জমিসহ গাছপালা ভেঙ্গে পড়ে লোকালয়ের বাড়ি-ঘরের ব্যাপক ক্ষতি হয়। এই ৩ উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায়, শিলাবৃষ্টি কারণে ওই উপজেলার শতশত বসত-বাড়ির ঘরের উপরের টিন ফুটা হয়ে গেছে। এ ছাড়া ভুট্টা,তামাক ও ইরি-বোরোসহ বিভিন্ন ক্ষেতের ফসল নষ্ট হয়ে গেছে।সদর উপজেলার আমিনুর রহমান জানান, এ এলাকার বেশির ভাগ বাড়ির টিন ফুটো হয়ে গেছে। এ ছাড়া ও এলাকার ভুট্টা,তামাকসহ ক্ষেতের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।জানান,ভয়াবহ এ শিলাবৃষ্টিতে বসত বাড়িসহ বিভিন্ন ফসলী ক্ষেতের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে বলে সেখানকার জনপ্রতিনিধিরা জানিয়েছেন। ক্ষতিগ্রস্থদের তালিকা তৈরী করে দিলে তাদের সহযোগিতা করা হবে।

Previous articleবাকৃবিতে উদ্ভাবিত হলো পাংগাসের আচার ও পাউডার
Next articleনেত্রকোনায় ট্রলির চাপায় শিশু নিহত
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।