কায়সার হামিদ: উখিয়ায় রোহিঙ্গা অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের সাথে ইয়াবার টাকা ভাগবাটোয়ারা নিয়ে বালুখালী গ্রামের নাজমুল (২২) নামের এক যুবক গুলিবিদ্ধ হয়েছে। ১৪ই এপ্রিল রোববার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে পূর্ব বালুখালীর নোয়াপাড়ার ঘাট মরহুম নজির আহম্মদ চৌধুরীর মালিকানাধীন চিংড়ি ঘের এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে। গুলিবিদ্ধ নাজমুল স্থানীয় মৃত মো: সিদ্দিকের ছেলে। তাকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে নাজমুলের বয়বৃদ্ধ মা গুলজার বেগম জানিয়েছেন।
উখিয়া থানা পুলিশ সোমবার দুপুরে ঘটনাস্থল পূর্ব বালুখালি নাফ নদী সংলগ্ন এলাকা পরিদর্শন করে একটি মোবাইল একটি তার কাটার প্লাস ও একটি টর্চ লাইট উদ্ধার করেছে। এ ঘটনা নিয়ে পরস্পর বিরোধী বক্তব্য পাওয়া গেছে।
ঘটনাস্থল পরিদর্শন কালে বালুখালী পূর্ব পাড়ার বাসিন্দা পালংখালী ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান নুরুল আবছার চৌধুরী জানান গুলিবিদ্ধ নাজমুলের মালিকানাধীন চিংড়ি ঘের পাহাড়া দেওয়ার সময় অজ্ঞাতনামা ৪/৫জন মুখোশধারী নাফ নদী পার হয়ে এ পারে আসছিল।
এসময় তাদের লক্ষ্য করে টর্চের আলো ফেললে সন্ত্রাসীরা নাজমুলকে লক্ষ্য করে এক রাউন্ড গুলি বর্ষন করে। গুলিটি তার ডান পায়ে বিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হয়েছে। তবে এলাকার নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধীক লোকজন জানায় প্রতিপক্ষ রোহিঙ্গা ইয়াবা কারবাবিদের সাথে ইয়াবার টাকা লেনদেন নিয়ে বনিবনা না হওয়ায় নাজমুলের পায়ে গুলিবিদ্ধ করে তারা ইয়াবার চালানটি নিয়ে পালিয়ে যায়।
প্রতক্ষ্যদর্শীরা জানান, উল্লেখিত স্থানটি নাফ নদীর প্রশস্ততার অত্যান্ত ছোট হওয়ার কারনে কাটাঁতারের বেড়া পার হয়ে নাফ নদীর হাটু পানি পেরিয়ে ইয়াবার চালান নিয়ে অনায়াসে লক্ষ্যস্থলে পৌছানো সম্ভব হয় বিধায় বালুখালী পূর্ব পাড়া নোয়াপাড়ার ঘাট ইয়াবা পাচারের নিরাপদ রুটে পরিনত হয়েছে।
উখিয়া থানার ওসি তদন্ত নুরুল ইসলাম মজুমদার জানান, গভীর রাতে নাফ নদী সংলগ্ন এলাকায় গুলিবিদ্ধ হওয়ার ঘটনারটি গভীর পর্যবেক্ষণ করে দেখা হচ্ছে।

Previous articleধর্ষকদের হাত কামড়িয়ে মসজিদে আশ্রয় নিল তরুণী, বান্ধবীকে গণধর্ষণ
Next article‘সাংবাদিকদের উসকানি’র কারণেই হাসি দিয়েছিলাম: শাজাহান খান
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।