ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে চলন্ত যাত্রীবাহী এসি বাসে আগুন

কাগজ প্রতিনিধি: মানিকগঞ্জে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে চলন্ত এসি বাসে হঠাৎ আগুন ধরে যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এতে বাসটির অধিকাংশ পুড়ে গেছে। তবে অল্পের জন্য প্রাণে রক্ষা পেয়েছেন বাসের অন্তত ১২ যাত্রী।

সোমবার সকালে মহাসড়কের নয়াডিঙ্গী বাসস্ট্যান্ড এলাকায় কে-লাইন পরিবহনের ওই বাসের ইঞ্জিনে ত্রুটি থেকে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এ সময় ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে প্রায় আধা ঘণ্টা যানবাহন চলাচল বন্ধ ছিল। এতে দীর্ঘ যানজটে পড়ে দুর্ভোগে পড়েন ঈদে ঘরমুখো হাজারো মানুষ।

কে-লাইন পরিবহনের হেলপার আশরাফুল ইসলাম জানান, সাতক্ষীরা থেকে ১০/১২ জন যাত্রী নিয়ে ঢাকায় ফিরছিল বাসটি। সকালে নয়াডিঙ্গী এলাকায় পৌঁছালে ইঞ্জিন অতিরিক্ত গরম হয়ে যান্ত্রিক সমস্যা দেখা দেয়। এ সময় ওয়ারিংয়ের তার গরম হয়ে বাসের এসির মধ্যে আগুন ধরতে শুরু করে। তাৎক্ষণিক বিষয়টি টের পেয়ে যাত্রীদের রাস্তায় নামিয়ে দেয়া হয়। পরে সম্পূর্ণ বাসটিতে আগুন ছড়িয়ে পড়ে।

মানিকগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক মিজানুর রহমান জানান, বাসে আগুন লাগার খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে প্রায় ঘণ্টাখানেকে চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। কিন্তু ততক্ষণে বাসটির প্রায় অধিকাংশই পুড়ে যায়।

প্রাথমিকভাবে অগ্নিকাণ্ডের কারণ হিসেবে তিনি জানান, ইঞ্জিনের অতিরিক্ত গরমে যন্ত্রাংশে যন্ত্রাংশে ঘর্ষণের ফলে ওয়ারিংয়ের তার থেকে এসির মধ্যে আগুন ধরে যায়।

গোলড়া হাইওয়ে পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) লুৎফর রহমান জানান, কে-লাইন পরিবহনের এসি বাসে যান্ত্রিক ক্রুটির কারণে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। তবে যাত্রীরা সবাই নিরাপদে বাস থেকে নামতে পারায় কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

তিনি আরও জানান, অগ্নিকাণ্ডের কারণে মহাসড়কে কিছুক্ষণের জন্য যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পরে বাসটি রাস্তার পাশে সরিয়ে নেয়া হলে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।