শুক্রবার, জুলাই ১৯, ২০২৪
Homeসারাবাংলাশার্শার বাগআঁচড়া-কায়বা সড়কটি যেন মরন ফাঁদ

শার্শার বাগআঁচড়া-কায়বা সড়কটি যেন মরন ফাঁদ

শহিদুল ইসলাম: যশোরের শার্শার বাগআঁচড়া টু কায়বা গয়ড়া টু রুদ্রপুর একমাত্র সড়কটি মানুষই কলেজ রোড বলে চিনে থাকে।বহুল আলোচিত এই সড়কের করুন অবস্থার কথা অজানা নেই কারোর। যেটা বর্তমানে মানুষের গলার কাটাঁর পাশাপাশি মরন ফাঁদে পরিনত হয়েছে বলে অভিযোগ করেন এলাকাবাসী।

তারা বলেন, আমাদের কায়বা ইউনিয়নে বাড়ি বলতে লজ্জা লাগে।দূরের কোনো আত্মীয় স্বজন একবার আসলে,এই রাস্তার বেহাল অবস্থার জন্য দ্বিতীয় বার আসতেই চায় না। নিজেদের খুব অসহায় মনে হয়।

দক্ষিণ শার্শার প্রায় হাজার হাজার সাধারণ মানুষের অন্যতম যোগাযোগের মাধ্যমে এই কলেজ রোড।এই সড়কের বাজে অবস্থা সকল রেকর্ড অতিক্রম করেছে। খরার সময় ধুলা আর বর্ষার সময় ছোটখাটো নদীতে রুপ নেয়। একটু বৃষ্টি নামলেই হাঁটু পানি। অতিরিক্ত জলাবদ্ধতার কারনে রাস্তার পাশে পানি নিষ্কাশনের জন্য ড্রেন তৈরি করা হয় কিন্তু বিতর্কিত এই কাজে ভালো কোনো ফলাফল পায়নি বলে দাবি করেন এলাকাবাসী।
অস্বস্তিকর পরিস্থিতিতে পড়ে প্রতিনিয়ত বিরক্তবোধ হচ্ছে স্কুল-কলেজ পড়ুয়া ছেলেমেয়ে ও গর্ভবতী মায়েরা।কারন এই রাস্তার পাশে আছে স্বনামধন্য বাগআঁচড়া আফিলউদ্দীন ডিগ্রি কলেজ,বাগআঁচড়া হাফিজায়া মাদ্রাসা, বাগআঁচড়া ফাজিল মাদ্রাসা, প্রি-ক্যাডেট স্কুল, সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ছাড়া আরো অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।তাছাড়া গর্ববতী মায়েরা বিভিন্ন চিকিৎসা নিতে হিমসিম খেয়ে যায়।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে ঐ এলাকার একজন বাসিন্দা বলেন, আমরা খুবই হতাশ, চারিদিকে যখন দেখি সরকারের উন্নয়নের কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। সেখানে আমাদের এই জনবহুল ব্যস্ততম রাস্তাটার কোনো ভাবেই সংস্করণের নামই নেই।এই সমস্যা সমাধানের জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছি।
এলাকাবাসী বার বার স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদেরকে রাস্তাটি সংস্করণের জন্য অবগত করলেও কোনো লাভ হয়নি।

স্থানীয় এক নেতা বলেন, বাজেট কম বলে এই রাস্তার টেন্ডার কেউ নিতে চাচ্ছে না। তবে, খুব তাড়াতাড়ি এই রাস্তার সমস্যা সমাধান হবে বলে জানান।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerbangladesh.com.bd/
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments