ইসলামের শান্তির প্রচারে এনায়েতপুরে সুফী সিম্পোজিয়াম

মারুফা মির্জা: ভারতীয় উপমহাদেশে ইসলাম প্রতিষ্ঠায় পীর আওলিয়া ও সুফী সাধকরা যে শান্তির বাণীর আলো ছড়িয়েছেন সেই ধারা প্রচারে সিরাজগঞ্জের হযরত খাজা বাবা ইউনুস আলী এনায়েতপুরী (রঃ) মাজার শরীফে সুফী সিম্পোজিয়াম অনুষ্ঠিত হয়েছে। দরবারের ১০৫ তম বাৎসরিক ওরশ উপলক্ষে শনিবার গভীর রাতে সুফী গবেষনা কেন্দ্রে তৃতীয় বারের মত এ অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কানাডার টরেন্টো বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ড. গোলাম দস্তগীর। এসময় সাড়া দেশ থেকে আসা সুফী তত্বকে অনুসরন করা শিক্ষক, বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সহ ভক্তবৃন্দরা অংশ গ্রহন করে। এতে প্রফেসর ড. গোলাম দস্তগীর বলেন, আমাদের এ উপমহাদেশে সনাতন ধর্মালম্বীদেরই বিস্তার ছিল। এখানে মধ্য প্রাচ্যের সুফি সাধক ও তার অনুসারীরা কল্যাণময় কাজের মাধ্যমে ইসলাম প্রতিষ্ঠিত করে গেছেন। তাদের সে ধারা অনুসরন করে পীর আওয়ালিয়ারার মাজার গুলোতে কাজ চলছে। মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সঃ) এর সত্য তরিকাই মুলত তারা প্রচার করছে। এক্ষেত্রে খাজা ইউনুস আলী এনায়েতপুরী (রঃ) উপমহাদেশের মধ্যে অন্যতম। তবে কিছু কিছু মাজারে বিতর্কিত কর্মকান্ডের কারনে অন্যদেরও সমালোচনায় পড়তে হচ্ছে। আমরা সেই ধারা থেকে বের হয়ে সঠিক ইসলাম প্রচারে নিবেদিত হতে চাই। বিশেষ করে তথ্য প্রযুক্তির এই যুগে ডিজিটাল প্রচারনার মাধ্যমে সুফিবাদের আদর্শের দিকটা সবাইকে তুলে ধরতে হবে। এজন্যই আমাদের সুফী সিম্পোজিয়ামের আয়োজন। আগামীতে জাতীয়-আন্তর্জাতিক পর্যায়ে আমাদের এই আয়োজন করার পরিকল্পনা রয়েছে।