যশোর-৬ উপ-নির্বাচন : কেশবপুরে আলোচনায় আ'লীগের ৬ প্রার্থী

জি.এম.মিন্টু: আসন্ন যশোর-৬ উপ-নির্বাচনকে সামনে রেখে কেশবপুরে আলোচনায় রয়েছে আওয়ামীলীগের ৬ জন প্রার্থী। ফেসবুক,অনলাইন ও পত্রিকার মাধ্যমে এই সব প্রার্থীরা তাদের প্রর্থীতার আগাম জানান দিচ্ছেন। গত ২১ জানুয়ারী-২০ যশোর -০৬ কেশবপুর আসনের সংসদ সদস্য ও সাবেক জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ইসমাত-আরা-সাদেকের মৃত্যুর পর এই আসনটি শূন্য হয়। তার মৃত্যুর পর কেশবপুরে আওয়ামী রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটের পরিবর্তন হয়েছে, উপজেলা আওয়ামীলীগ ফিরে পেয়েছে তাদের হারানো শক্তি,নির্বাচনের পট পরিবর্তনে মাঠে সরব মূলধারা আওয়ামী নেতা- কর্মীরা।২০১৪ সালে ইসমাত আরা সাদেক এই আসন থেকে প্রথম এম.পি নির্বাচিত হয়ে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী হওয়ার পর থেকে কেশবপুরের কতিপয় সুবিধাভোগী আওয়ামীলীগের নেতা তাদের ব্যক্তিস্বার্থ হাচিলের উদ্দেশ্যে ইসমাত আরা সাদেককে ভুল বুঝায়। ভুল বুঝাবুঝির কারনে সেই থেকে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাথে এমপির দূরত্ব সৃষ্টি হয়। ক্ষমতার জোরে তিনি আওয়ামীলীগের মূল ধারার নেতা-কর্মীদের কোনঠাসা করে রাখেন। গত ২৪ জানুয়ারী ইসমাত আরা সাদেকের শোকসভার প্রধান অতিথি যশোর জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক শাহিন চাকলাদের বক্তব্যে সেটি স্পষ্ট বুঝা যায়। তিনি বলেন অতীতে এই ধরনের ভুল যে নেতারা করবেন তাদের ছাড় দেওয়া হবেনা। আগামীতে কেশবপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতৃত্বে দলের সকল কর্মকান্ড পরিচালিত হবে। তার এই বক্তব্যের পর উপজেলা আওয়ামীলীগ তাদের হারারো শক্তি ফিরে পেয়েছে। তৃনমূলের নেতা-কর্মীদের এক টাই দাবী, তারা প্রকৃত আওয়ামী নেতাকেই আগামী উপ-নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী হিসেবে দেখতে চাই। তাই দেরি না করে বঙ্গবন্ধুর পরিক্ষিত ও কেশবপুর রাজপথের লড়াকু সৈনিকেরা প্রার্থীতা ঘোষনা দিয়ে নির্বাচনী মাঠে নেমে পড়েছে। আসন্ন কেশবপুর সংসদ উপ-নির্বাচনকে সামনে রেখে আওয়ামীলীগের ৬ জন প্রার্থীর নাম জোরো সোরে আলোচনায় স্থান পেয়েছে। তারা হলেন, কেশবপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের ২৪ বছরের নির্বাচিত সভাপতি এস.এম রুহুল আমীন, আওয়ামীলীগের প্রভাবশালী নেতা এ্যাড. হুসাইন মোহাম্মদ ইসলাম, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান এইচ.এম আমীর হোসেন, মরহুম ইসমাত আরা সাদেকের মেয়ে নওরীন সাদেক। এছাড়া যশোরের শাহিন চাকলাদার ও সাংবাদি শ্যামল সরকার এই শূন্য আসনে দলীয় মনোনয়ন পেতে দলীয় হাইকমান্ডে সাথে যোগাযোগ অব্যাহত রেখেছে বলে দলীয় একাধিক সূত্রে জানা গেছে। উপ-নির্বাচনে আবারো সাদেক পরিবার নাকি বিকল্প কাউকে দলীয় মনোনয়ন দিতে যাচ্ছে শেখ হাসিনা- এই নিয়ে কেশবপুর রাজনৈতিক মহলসহ বিভিন্ন হাট-বাজার, আডডাখানায় চলছে চুলচেরা বিশ্লেষন ও আলোচনা।