মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারি ২০, ২০২৪
Homeসারাবাংলাকলাপাড়ায় আয়রন ব্রিজটি মরনফাঁদে পরিনত হয়েছে

কলাপাড়ায় আয়রন ব্রিজটি মরনফাঁদে পরিনত হয়েছে

এস কে রঞ্জন: পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার লালুয়া ইউনিয়নের বানাতিবাজার সংলগ্ন আয়রন ব্রিজটি মরনফাঁদে পরিনত হয়েছে। সিমেন্টের স্লাব ও লোহার অ্যাঙ্গেল গুলো ভেঙ্গে যাওয়ায় ব্রিজটি দিয়ে প্রতিদিন দশ গ্রামের কয়েক হাজার মানুষ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পারা পার হচ্ছে। যে কোন সময় বড় ধরনের দূর্ঘটনা হতে পারে। স্থানীয়রা ব্রিজের নিচে বাঁশ বেধে পিলার সোজা করে জোড়া দিয়েছেন। উপজেলার লালুয়া ইউনিয়নের দশটি গ্রমের সাথে বানাতী বাজারের যোগাযোগের একমাত্র মাধ্যম এ ব্রিটি এমন বেহাল দশায় পরিণত হয়েছে সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়,জনতা মাধ্যমিক বিদ্যালয়,বানাতীপাড়া সরকারী প্রথমিক বিদ্যালয় ও নয়াপাড়া দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা এই ব্রিজ পাড় হয়ে প্রতিদিন স্কুলে যাতায়াত করেন। এছাড়া লালুয়া ইউনিয়নের মাঝের হাওলা, গোলবুনিয়া, চিংগুড়িয়া, মহল্লাপাড়া, নয়াপাড়া, দশকানী, মরিচবুনিয়া, ছোনখোলা, পশরবুনিয়া ও চড়পাড়া গ্রামের মানুষের সড়ক পথে কলাপাড়া উপজেলা সদর ও বানাতীবাজাওে চলাচলের একমাত্র মাধ্যম এই আয়রন বিজ্রটি। দীর্ঘ দিন ধরে আয়রন ব্রীজটি মেরামত না করায় মরন ফাঁদে পরিনত হয়েছে। যে কোন সময় ভেঙে পরতে পাওে আয়রন ব্রিজটি। তারপরও কোন উপায় না পেয়ে প্রতিনিয়ত জীবনের ঝুঁকি নিয়ে আয়রন ব্রিজটি দিয়ে চলাচল করছে স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীরা। প্রতিদিন কোন না কোন দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছে শিক্ষার্থীরা। এছাড়া এ ব্রিজ দিয়ে মটরসাইকেল ছাড়া চলতে পারে না কোন যানবাহন। পশরবুনিয়া গ্রামের বাসিন্দা সুলতান মৃধা জানান,আয়রন ব্রিজটি যে কোন সময় ভেঙ্গে বড় ধরনের দূর্ঘটনা হতে পারে । বানাতীপাড়া সরকারী প্রথমিক বিদ্যালয় ৫ শ্রেনীর শিক্ষার্থী সুমাইয়া জানান,আযরন ব্রিজটি পার হয়ে স্কুলে আসতে অনেক ভয় হয়। মনে হয় এই বুঝি ভেঙ্গে পরে যাচ্ছি নিচে। লালুয়া ইউপি চেয়ারম্যান শওকত হোসেন তপন বিশ্বাস জানান,আয়রন ব্রিজটি মোটামুটি চলাচলের জন্য উপযোগী করা হয়েছে। উপজেলা পরিষদে প্রস্তাবনা পাঠানো হয়েছে । কলাপাড়া উপজেলা স্থানীয় সরকার প্রকৌশলৗ (এলজিইডি) নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মান্নান বলেন, উপজেলার লালুয়া বানাতিবাজার সংলগ্ন আয়রন ব্রিজটির টেন্ডার প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

আজকের বাংলাদেশhttps://www.ajkerbangladesh.com.bd/
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।
RELATED ARTICLES
- Advertisment -

Most Popular

Recent Comments