উল্লাপাড়ায় বিয়ের দাবিতে ৬ দিন ধরে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার অবস্থান

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় বিয়ের দাবিতে ৬ দিন ধরে প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান করছেন প্রেমিকা। আর প্রেমিক বাড়ির লোকজন নিয়ে অন্যত্র পালিয়ে গেছেন। ঘটনাটি সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলার হাটিকুমরুল ইউনিয়নের আঙ্গারু গ্রামের।

স্থানীয়রা জানায়, উপজেলার রশিদপুর গ্রামের আবদুল খালেক প্রামাণিকের মেয়ে জেসমিনের (২২) সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে উপজেলার আঙ্গারু গ্রামের ডা. শফিকুল ইসলামের ছেলে ওবায়দুলের। ওবায়দুল উল্লাপাড়া সরকারি আকবর আলী কলেজের সম্মান শ্রেণির ছাত্র। জেসমিন ২০১৭ সালে আমডাঙ্গা দাখিল মাদ্রাসা থেকে দাখিল পাস করেছে। জেসমিনকে ওবায়দুল একাধিকবার বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সময় পার করেছেন। এখন আর তাকে বিয়ে করতে রাজি হচ্ছেন না। নিরুপায় হয়ে জেসমিন গত মঙ্গলবার থেকে ওবায়দুলের বাড়িতে গিয়ে অবস্থান নিয়েছেন। জেসমিন বলেছেন, দুই-একদিনের মধ্যে ওবায়দুল তাকে বিয়ে না করলে ওই বাড়িতেই আত্মহত্যা করবেন। আঙ্গারু গ্রামের প্রতিবেশী আবদুল মান্নান জেসমিনকে খাবার সরবরাহসহ দেখাশোনা করছেন।

হাটিকুমরুল ইউপি সদস্য শামীম হোসেন জানান, ওবায়দুল এর আগেও অন্য মেয়ের সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে গ্রাম্য সালিশে জরিমানা দিয়েছেন। মাতবরদের নিয়ে এ ব্যাপারে একটি সুষ্ঠু মীমাংসার চেষ্টা চালাচ্ছেন তিনি।

তবে সমস্যা দেখা দিয়েছে ওবায়দুল তার পরিবার-পরিজন নিয়ে বাড়ি থেকে অন্যত্র চলে যাওয়ায়।

সলঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ জেডজেডএম তাজুল হুদা জানান, প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার অবস্থানের খবর তিনি জেনেছেন। অভিযোগ পেলে পুলিশ দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা নেবে।