ভাতিজার হাতে ফুফু খুন, মরদেহ দেখে আরেকজনের মৃত্যু

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে নিজ ফুফুকে পিটিয়ে হত্যা করেছে ভাতিজা মমিজুল (৩৮) নামে এক যুবক। রোববার (০৯ ফেব্রুয়ারি) উপজেলার রিশিকুল ইউনিয়নের ডাইংপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছে ৯৯৯ এর মিডিয়া সেল।

এদিকে, মরদেহ দেখতে গিয়ে নিহতের এক আত্মীয় ঘটনাস্থলেই হার্ট স্টোক করে মারা যান। সে একই এলাকার মৃত মুক্তার আলীর স্ত্রী আনগুরা বেগম (৬০)।

৯৯৯ এর মিডিয়া সেল থেকে জানা গেছে, রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার রিশিকুল ইউনিয়নের ডাইংপাড়া থেকে এক পথচারী ৯৯৯-এ ফোন করে জরুরি পুলিশি সহায়তা চান। রিশিকুল ডাইংপাড়া এলাকায় প্রচণ্ড ঝগড়া এবং লাঠিসোটা ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে মারামারি হচ্ছে এমন তথ্য জানান ওই পথচারী। ৯৯৯ তাৎক্ষণিকভাবে ওই পথচারীর সঙ্গে গোদাগাড়ী উপজেলার কাকনহাট ফাঁড়ির ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক শিশির সঙ্গে কথা বলিয়ে দেন। সংবাদ পেয়ে পুলিশ পরিদর্শক ফোর্সসহ অবিলম্বে ঘটনাস্থলে যান।

তিনি ঘটনাস্থল থেকে হামিদার (৪০) নামে একজনের মরদেহ উদ্ধার করেন। এবং হত্যার অভিযোগে মমিজুল (৩৮) নামে একজনকে আটক করেন। নিহত হামিদা অভিযুক্ত মমিজুলের ফুফু।

জমি নিয়ে বিরোধের কারণে এই হত্যাকাণ্ড ঘটে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। অভিযুক্তকে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। এ ঘটনায় গোদাগাড়ী মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।