স্ত্রী ও সন্তানের পর চলে গেলেন রনিও

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: ঢাকার দিলু রোডে ভবনে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ছেলে, স্ত্রীর পর শহিদুল কিরমানী রনিও চলে গেলেন না ফেরার দেশে।
চার দিন আগে পাঁচতলা ওই ভবনে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে পাঁচজন হল।
শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে মারা যান রনি (৩৯)।
বার্ন ইউনিটের সমন্বয়ক সামন্ত লাল সেন গণমাধ্যমকে বলেন, রনি শরীরের ৪৩ শতাংশ আগুনে পুড়ে গিয়েছিল।
রনির স্ত্রী জান্নাতুল ফেরদৌসী (৩৪) রোববার সকালে বার্ন ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। আর তাদের সন্তান এ কে এম রুশদির অগ্নিকাণ্ডের পর বৃহস্পতিবার ভোরে ওই ভবনের সিঁড়ি থেকে মৃত দেহ উদ্ধার করা হয়।
রনি হাতিরঝিল পুলিশ প্লাজায় ‘ভিআইভিপি এস্টেট ম্যানেজমেন্ট’ নামে একটি কোম্পানির ফাইন্যান্স ম্যানেজার ছিলেন। আর তার স্ত্রী জান্নাত বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যাল লিমিটেডের অর্থ বিভাগে চাকরি করতেন। তাদের বাড়ি নরসিংদীর শিবপুরের ইটনায়।
বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ৪টায় ইস্কাটনের দিলু রোডে ওই ভবনের গ্যারেজ থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়, পরে তা ছড়িয়ে পড়ে।
ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা সেদিন আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার পর শিশু রুশদিসহ তিনজনের লাশ উদ্ধার করেন।

Previous articleগুলি করে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে সুমনকে বিয়ে করেন পাপিয়া!
Next articleখুলনায় ছাত্রলীগ নেতাকে পিটিয়ে হত্যা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।