মুন্সীগঞ্জে চিকিৎসকসহ নতুন করে ১৭ জনের করোনা শনাক্ত

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: মুন্সীগঞ্জে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে চিকিৎসকসহ আরও ১৭ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন।

এ নিয়ে জেলায় মোট করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়ালো ৪৬০ জনে। সিভিল সার্জন ডা. আবুল কালাম আজাদ জানান, পুলিশ সুপার মো. আব্দুল মোমেন পিপিএমের নমুনা পাঠানো হলে রিপোর্টে তার করোনা ধরা পড়েনি।

নতুন করে আরও ১৪ জনসহ এ পর্যন্ত জেলায় ৯০ জন সুস্থ হয়েছেন। এ জেলায় করোনায় মারা গেছে ১৪ জন। নতুন আক্রান্ত ১৭ জনের মধ্যে মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলায় ১০ জন, লৌহজং উপজেলায় একজন, গজারিয়ায় ৩ জন, সিরাজদিখানে ২ জন ও শ্রীনগর উপজেলায় একজন। বুধবার টঙ্গীবাড়ি উপজেলায় নতুন করে কেউ করোনায় আক্রান্ত হয়নি।

সিভিল সার্জন ডা. আবুল কালাম আজাদ জানান, ১৮ ও ১৯ মে পাঠানো ২৩৫ জনের নমুনার রিপোর্ট পাঠিয়েছে নিপসম। এর মধ্যে ১৭ জনের করোনা পজেটিভ পাওয়া যায়। তিনি জানান, এপর্যন্ত ২৯২৬টি নমুনা প্রেরণ করা হয়েছে। রিপোর্ট এসেছে ২৭০১টির।

মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলায় নতুন শনাক্ত ১০ জনের মধ্যে রয়েছেন মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসনের একজন পুরুষ স্টাফ (৫৩), মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের পুরুষ কর্মী (২৫), মুন্সীগঞ্জ শহরের খালইস্ট এলাকায় একই পরিবারের পুরুষ (৫৩), নারী (৫৮) এবং কিশোরী (১৪), মাঠপাড়ায় এক পুরুষ (৩৫), মালপাড়ায় এক নারী(৪২), মুন্সীগঞ্জ সদর ঠিকানায় একজন পুরুষ (৩৫), মুক্তারপুরে এক নারী (১৮) ও পঞ্চসারে একজন পুরুষ (৫০)।

লৌহজং উপজেলায় নতুন শনাক্ত হয়েছেন বানিয়াগাঁও গ্রামের একজন পুরুষ (৪০)। গজারিয়া উপজেলায় নতুন শনাক্ত হয়েছে ৩ জন। এর মধ্যে ভবেরচর কলেজ রোডের একজন পুরুষ (৩৯), গজারিয়ার জেএমআই ওষুধ ফ্যাক্টরির একজন পুরুষ (৩৬) ও ইডিইকে ফ্যাক্টরি এক পুরুষ (৪১) কর্মী।

সিরাজদিখান উপজেলায় নতুন শনাক্ত সংখ্যা ২ জন। এর মধ্যে সিরাজদিখান উপজেলা অফিসের এক নারী (৩০) কর্মী এবং উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এক নারী (৫২) কর্মী।

শ্রীনগরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একজন চিকিৎসকের করোনা শনাক্ত হয়েছে। হাসপাতালটির ওই পুরুষ (৩৫) চিকিৎসক এখন আইসোলেশনে রয়েছেন।