ঝাড়-ফুঁকের অজুহাতে কিশোরীকে ধর্ষণচেষ্টা

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: বরগুনার বেতাগী উপজেলায় ঝাড়-ফুঁকের মাধ্যমে চিকিৎসা দেওয়ার অজুহাতে এক কিশোরীকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। বেতাগী উপজেলার বিবিচিনি ইউনিয়নের দেশান্তরকাঠী গ্রামের নারায়ণ চন্দ্র শীলের ছেলে লক্ষীচন্দ্র শীলের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ উঠেছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার এক কিশোরীকে গত মঙ্গলবার রাতে ঝাড়-ফুঁক দিয়ে চিকিৎসার অজুহাতে বাড়ির পেছনের কক্ষে নিয়ে যান লক্ষীচন্দ্র। এতে সামনের কক্ষে থাকা কিশোরীর মায়ের সন্দেহ হয়। রাত ৯টার দিকে তিনি পেছনের কক্ষে গিয়ে দেখেন তার মেয়েকে মুখ চেপে ধরে ধর্ষণের চেষ্টা করছেন লক্ষীচন্দ্র। এ সময় কিশোরী ও তার মায়ের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে লক্ষীচন্দ্র শীল দৌড়ে পাালিয়ে যায়। এ ঘটনা জানাজানির পরপরই লক্ষীচন্দ্রের ভাই ইউনিয়ন যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রবি চন্দ্র শীলের নেতৃত্বে কয়েকজন যুবক ভুক্তভোগীর বাড়িতে গিয়ে এ বিষয়ে কোথাও কোনো অভিযোগ দিলে প্রাণনাশের হুমকি দেন।

বিবিচিনি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নওয়াব হোসেন নয়ন খান বলেন, ‘ঘটনার পরে ইউপি সদস্য ছত্তার মল্লিক, রিয়াজ হোসেন, আলমগীর হোসেন ও বেতাগী থানার এসআই আমিনুল ইসলামসহ কয়েকজন ভুক্তভোগীর বাড়িতে গিয়ে ঘটনার সত্যতা পেয়েছেন। বিচারের জন্য বৈঠকে বসলেও লক্ষীচন্দ্র শীল ও তার ভাই রবিচন্দ্র শীল সেখানে না আসায় বিচার করা সম্ভব হয়নি। এখন থানা আছে, পুলিশই বিচার করবে।’

এ বিষয়ে বেতাগী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাখাওয়াত হোসেন তপু বলেন, ‘ রোববার ভুক্তভোগীর বাবা ও মা লিখিত অভিযোগ নিয়ে থানায় এসেছিলেন। অভিযোগপত্রটি কাঁটাছেঁড়া থাকায় কম্পোজ করে জমা দেবেন বলেছেন তারা। অভিযোগ পেলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

Previous articleবিশ্বে করোনায় মৃত ৩ লাখ ৭০ হাজার ছাড়াল, আক্রান্ত ৬১ লাখের বেশি
Next articleদক্ষিণ আফ্রিকায় শ্বাসরোধ করে বাংলাদেশিকে হত্যা
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।