উল্লাপাড়ায় দাদার শখ পুরণে বিয়ে করতে হাতির পিঠে চড়ে বর এলেন কনের বাড়ী

সাহারুল হক সাচ্চু: সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে বিয়ে করতে বর মোঃ মোতালেব হোসেন হাতির পিঠে চড়ে প্রায় ৪ কিলোমিটার দুরে কনের বাড়ীতে এলেন। তার সাথে অন্যান্য বাহনে এসেছেন বর যাত্রীরা। বরের মৃত দাদার শখ ছিলো হাতির পিঠে চড়ে নাতি বিয়ে করতে যাবে। উল্লাপাড়া উপজেলার চালা গ্রামের আবুল কাশেমের ছেলে বর মোঃ মোতালেব হোসেন পেশায় একজন সরকারি চাকুরিজীবি। তিনি ঢাকায় চাকুরি করেন।এদিকে কনের বাড়ী উপজেলার খালিয়াপাড়া গ্রামে। তার পিতা ছাইদুর রহমান একজন চাকুরিজীবি। চালা থেকে খালিয়াপাড়া গ্রামের দুরত্ব প্রায় ৪ কিলোমিটার। বর পক্ষ থেকে জানানো হয়, বর মোতালেব হোসেনের দাদা মৃত রহমত আলী জীবিত থাকাকালিন শখের কথা জানিয়েছিলেন নাতি মোঃ মোতালেব হোসেনকে হাতির পিঠে চড়িয়ে বিয়ে করাতে নিয়ে যাবেন। তিনি এখন বেচে নেই। বরের পিতা আবুল কাশেম তার মৃত পিতার সে শখ মোতাবেক ছেলেকে হাতির পিঠে চড়িয়ে বিয়ে করাতে নিয়ে এসেছেন। বিয়ে করতে হাতির পিঠে চড়ে বর এসেছেন দেখতে খালিয়াপাড়া গ্রামে বিভিন্ন বয়সের নারী পুরুষের ভীড় জমেছে। একইভাবে চালা গ্রামেও জমে নারী পুরুষের ভীড়। জানানো হয় হাতিটি ভাড়া করে আনা হয়েছে। বিয়ে করে কনে নিয়ে অন্য বাহন বলতে প্রাইভেট গাড়ীতে ফেরা হবে। বর মোতালেব হোসেন তার অনুভুতির বিষয়ে বলেন হাতির পিঠে চড়ে বিয়ে করতে এসে দাদার শখ পুরণ হলো। তার নিজের মনেও বেশ আনন্দ জেগেছে।

Previous articleটাঙ্গাইলে চতুর্থ শ্রেণির শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ শেষে হত্যার অভিযোগ
Next articleওসি প্রদীপের বিরুদ্ধে বোনের সম্পত্তি আত্মসাতের অভিযোগ
আজকের বাংলাদেশ ডিজিটাল নিউজ পেপার এখন দেশ-বিদেশের সর্বশেষ খবর নিয়ে প্রতিদিন অনলাইনে । ব্রেকিং নিউজ, জাতীয়, আন্তর্জাতিক রিপোর্টিং, রাজনীতি, বিনোদন, খেলাধুলা আরও অন্যান্য সংবাদ বিভাগ । আমাদের হাত বাধা নেই, আমাদের চোখ খোলা আমরা বলতে পারি ।