৯৯৯-এ ধর্ষণের অভিযোগ পুত্রবধূর, শ্বশুর আটক

বাংলাদেশ প্রতিবেদক: জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এ ফোন কল করে শ্বশুরের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ করেছেন এক পুত্রবধূ। অভিযোগের ভিত্তিতে শ্বশুরকে আটক করেছে ঢাকার পল্লবী থানার পুলিশ।

রোববার (২০ সেপ্টেম্বর) সকাল ১১টায় বাংলাদেশ পুলিশ পরিচালিত জাতীয় জরুরি এ সেবায় ঢাকার পল্লবী থানাধীন মিরপুর ১১, ব্লক এ, ১৯ নম্বর সড়কের একটি বাড়ি থেকে এক নারী কলার ফোন করেন।

কান্নাজড়িত স্বরে তিনি জানান, তার শ্বশুর দ্বারা ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। তার স্বামী শারীরিক প্রতিবন্ধী এবং একটি সন্তান আছে। চার মাস পূর্বে তার শাশুড়ি মারা গেছেন। তারপর থেকেই শ্বশুর তাকে নানাভাবে উত্যক্ত করে আসছিলেন। কিন্তু লোকলজ্জার ভয়ে কাউকে কিছু বলতে পারেননি। রোববার সকালে তার শ্বশুর তাকে ধর্ষণ করেন এবং এ ঘটনা প্রকাশ না করার জন্য নানারকম হুমকি দিচ্ছেন। তার স্বামী প্রতিবন্ধী হওয়ায় তার পক্ষে বাবার বিরুদ্ধে কিছু করা সম্ভব নয়। তিনি ৯৯৯-এ ফোন করে জরুরি পুলিশি ও আইনি সহায়তার জন্য অনুরোধ করেন।

৯৯৯ তাৎক্ষণিকভাবে কলারের সঙ্গে পল্লবী থানার ডিউটি অফিসারের কথা বলিয়ে দেয়। সংবাদ পেয়ে পল্লবী থানা পুলিশের একটি দল অবিলম্বে ঘটনাস্থলে যায়। পরে পল্লবী থানার এস আই শফিয়ার রহমান ৯৯৯-কে ফোনে জানান, তিনি ঘটনাস্থলে গিয়ে পঁচিশ বছর বয়সী ভিকটিম পুত্রবধূকে উদ্ধার করেন এবং শ্বশুর আওয়াল আলীকে (৭০) আটক করেন।

ভিকটিমের ডাক্তারি পরীক্ষা ও পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানানো হয়েছে।