বাংলাদেশ প্রতিবেদক: রাজধানীর হাজারীবাগে স্ত্রীকে হত্যার পর নিজেই থানায় আত্মসমর্পণ করেছেন স্বামী। পারিবারিক কলহের জেরে রোকসানা আক্তার ময়নাকে আঘাত করে বসেন স্বামী ইউসুফ রানা।

২ বছরের শিশু আলিফা। কিছুক্ষণ পর পরই মাকে খুঁজে বেড়ায়। ছোট্ট এই শিশুটি জানে না তার মা আর পৃথিবীতে নেই।

স্বজনরা জানান, দীর্ঘদিন ধরে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে পারিবারিক কলহ চলছিল। তার জের ধরেই গতকাল বুধবার সন্ধ্যার দিকে বাসার ভিতরেই লোহার হামাম দিস্তা দিয়ে স্ত্রী ময়নার মাথায় আঘাত করেন স্বামী ইউসুফ। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। পরে মৃতদেহ বাসার ভিতরে রেখে দরজায় তালা মেরে দুই ছেলে মেয়েকে নিয়ে বেরিয়ে যান ইউসুফ।

পুলিশ বলছে, ঘটনার পর নিহতের স্বামী নিজেই থানায় গিয়ে ঘটনার দায় স্বীকার করে আত্নসমর্পণ করেন।

এই ঘটনায় নিহত ময়নার ভাই ফরহাদ বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।